সিসি ক্যামেরায় ড্যাফোডিলের ছাত্র তালহার ‘খুনি’ শনাক্ত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ অক্টোবর ২০১৭, ২০:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর ওয়ারির টিকাটুলিতে ছিনতাইকারীদের প্রতিরোধ করতে গিয়ে আজ রবিবার সকালে খুন হন ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবু তালহা। স্থানীয় একটি সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে সন্দেহভাজনকে দুই খুনিকে দেখা গেলেও রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহ কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, টিকাটুলিতে নিত্য ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে ছিনতাই। কিন্তু পুলিশ অনেকটাই নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। এলাকায় পুলিশের টহল বাড়ানোর জোর দাবিও জানান তারা।

তালহার বাবা খন্দকার নুরউদ্দিন জানান, টিকাটুলির ১২/২ নম্বর কেএম দাস লেনে পরিবারের সঙ্গে থাকতেন তালহা। ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের (আশুলিয়া শাখা) কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন তার ছেলে। আজ সকাল ৬টার দিকে ক্যাম্পাসের উদ্দেশে বাসা থেকে বের হন তালহা। বাসার ১০০ গজ অদূরে বেস্ট স্টুডিও মোড়ে আসতেই কয়েকজন ছিনতাইকারী দুইজন যাত্রীবাহি একটি রিকশার গতিরোধ করলে দৌড়ে এসে এর প্রতিরোধ করেন তালহা। একপর্যায়ে ছিনতাইকারীরা তালহার ডান উরু, হাত ও পায়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢামেক হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা সকাল সোয়া ৮টার দিকে তালহাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, এই হত্যাকাণ্ডে লিটু, হীরা ও আসলাম নামে সংঘবদ্ধ ছিনতাইচক্রের ৩ সদস্য জড়িত। যার সত্যতা পাওয়া গেছে জব্দকৃত সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজেও। তাতে দেখা গেছে, ভোর ৬টার দিকে কে এম দাস লেন সড়ক দিয়ে রিকশাযোগে যাচ্ছিলেন দুই যাত্রী। পেছনে থেকে তাদের ছিনতাইকারীরা ধাওয়া দেয়। এসময় এগিয়ে এসে তাদের প্রতিরোধের চেষ্টা করেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আবু তালহা। কিন্তু তাদের সঙ্গে পেরে ওঠেননি। একপর্যায়ে ছিনতাইকারীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রাস্তায় লুটিয়ে পরেন তিনি।

ফুটেজে আরও দেখা গেছে, ঘটনার সময় বেস্ট স্টুডিও মোড়ের দুটি পয়েন্টে অবস্থান নেয় ছিনতাইকারীরা। ফুটেজে চক্রের প্রধান লিটু ও হীরাকে দেখা গেলেও দূরে থাকায় আসলামের অবয়ব ধরা পড়েনি ক্যামেরায়। ছিনতাইয়ের পর তালহাকে আহত করে বীরদর্পে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে লিটু ও হীরা। লিটু-হীরা অস্ত্র মামলায় সাড়ে চার বছর জেল খাটার পর সম্প্রতি ছাড়া পেয়েছে বলেও জানা গেছে।

ওয়ারি থানার এসআই হারুন অর রশিদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবু তালহা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় স্থানীয় সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ফুটেজে দুইজন সন্দেহভাজন খুনিকে শনাক্ত করা গেছে। ফুটেজের সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। এই ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে