সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে চা শ্রমিক সন্তানদের জন্য পৃথক কোটার দাবি

  সিলেট ব্যুরো

১৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৮:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

দেশের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠি চা শ্রমিক সন্তানদের জন্য সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে পৃথক ৫ শতাংশ কোটা দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন কমসূচি পালিত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এই দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে সিলেট চা জনগোষ্ঠী ছাত্র-যুব কল্যাণ পরিষদ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সিলেট বিভাগের ১৫৮টি চা বাগানেরর নিরীহ শ্রমিক জনগোষ্ঠী ব্রিটিশ শাসনামল থেকে শোষিত হয়ে আসছে। বাগান কর্তৃপক্ষ মুনাফা অর্জন করলেও শ্রমিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়ন হয়নি। বর্তমান সরকার মধ্যম আয়ের দেশ ঘোষণা করলেও চাবাগানের শ্রমিকরা বিচ্ছিন্ন জনগোষ্ঠী হিসেবেই আছে। চা বাগানের শ্রমিকরা ৮৫ টাকা মজুরি ভিত্তিতে কাজ করে, যা দু কেজি চাল কেনারও মূল্য নয়, মৌলিক চাহিদা পূরণ তো স্বপ্ন। এই আয়ের বিপরীতে চলে প্রতিটি চাশ্রমিকের সংসার। এ অবস্থায় একজন শ্রমিকের সন্তান কি করে উচ্চ শিার স্বপ্ন দেখতে পারে?

বক্তারা বলেন, তাদের মেধা আছে কিন্তু বিকাশের সুযোগ পাচ্ছে না। বর্তমানে চা শ্রমিকদের সন্তানেরা শিােেত্র  কিছুটা এগিয়ে আসলেও দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। পিছিয়ে পড়া এই জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে চা শ্রমিক সন্তানদের ভর্তির পৃথক কোটা পদ্ধতি চালুর দাবি জানান তারা। তারা বলেন, এতে করে চা শ্রমিক সন্তানরা উন্নয়নের মূল স্রোতে মিশে যেতে পারবেন।

সিলেট চা জনগোষ্ঠী ছাত্র ও যুব কল্যাণ পরিষদ এর সভাপতি দিলিপ রঞ্জন কুর্মী’র সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক সুজিত বাড়াইক এর সঞ্চালনায় সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন সিলেট শাখার সাধারন সম্পাদক আব্দুল করিম কীম, গণসাহিত্য কেন্দ্র সিলেটের সম্বনয়ক আহমেদ সোহেল, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের কার্যকরী সদস্য নারায়ন কুর্মী, স্বপ্নকুড়ি সমাজকল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বিজয় রুদ্রপাল, দলদলি চা বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি মিঠন দাশ, বিশ্ববিদ্যালয় চা-ছাত্র সংসদের সহসভাপতি প্রদীপ দাশ, সিলেট চা জনগোষ্ঠী ছাত্র ও যুব কল্যাণ পরিষদের নারী ও শিশু সম্পাদিকা ঊষারানী দাশ, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের প্রচার সম্পাদক দেবাশীষ যাদব প্রমুখ।

এর আগে গত সোমবার দুপুরে একই দাবিতে শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিনের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন সিলেট চা জনগোষ্ঠী ছাত্র-যুব কল্যাণ পরিষদ।

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে