নকল সোনার মূর্তি বিক্রির অভিযোগে নারীসহ ৩ প্রতারক গ্রেপ্তার

  নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া ও দুপচাঁচিয়া প্রতিনিধি

১৩ নভেম্বর ২০১৭, ১৬:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় প্রতারনা করে নকল সোনার মুর্তি বিক্রির অভিযোগে নারীসহ তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় নকল সোনার মুর্তিটিও উদ্ধার করেছে পুলিশ।
গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার ঝাঝিড়া গ্রামের এ ঘটনা ঘটে। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার বালুকাপাড়া গ্রামের তোতা হোসেন (৫০), ঝাঝিড়া গ্রামের রবিন ইসলাম (৩০) এবং নাসিমা বেগম (৪০)। এ ঘটনায় প্রতারণার শিকার মতিউর রহমান বাদী রোববার সন্ধ্যায় দুপচাঁচিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ জানায়, প্রায় বিশ দিন আগে ঈশ্বরদী রেলস্টেশনে রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিপুর গ্রামের মতিউর রহমানের সঙ্গে দুপচাঁচিয়া উপজেলার ঝাঝিড়া গ্রামের রুবেল হোসেন নামের এক তরুণের পরিচয় হয়। মতিউর রহমান ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বেচাকেনা করেন। সেই সুবাদে রুবেল হোসেন মতিউরকে মুঠোফোনে তার এলাকায় কমদামে অটোরিকশা বিক্রির কথা বলে দুপচাঁচিয়ায় আসতে বলেন। মতিউর গত রোববার বিকেলে ঝাঝিড়া গ্রামে আসেন।

রুবেল ওই গ্রামে তার পালিত মাতা নাসিমার বাড়িতে মতিউরকে রেখে তার সহযোগিদের নিয়ে অটোরিকশার পরিবর্তে সোনার মুর্তি বিক্রির লোভ দেন। এতে মতিউর রাজি না হলে তাকে নাসিমার বাড়িতে আটকে রেখে মারপিট করে নগদ সাত হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে নকল সোনার মুর্তিসহ তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করে।

দুপচাঁচিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাকির হোসেন তিন প্রতারককে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মতিউর বাদী হয়ে সাতজনের নাম উলেখ করে এবং অজ্ঞাত ৮-১০জনকে আসামী করে দুপচাঁচিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে