নিয়মিত করা হতো উত্যক্ত, হঠাৎ নিখোঁজ কিশোরী

  বরগুনা প্রতিনিধি

১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১৮:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি
বরগুনা সদর উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী এক কিশোরী নিখোঁজ হয়েছে। তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে দাবি করছেন তার বাবা। ওই কিশোরীকে স্থানীয় কয়েকজন যুবক উত্যক্ত করতো বলে অভিযোগ করেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার লাকুরতলা গ্রামে অপহরণের ঘটনা ঘটে বলে মামলার এজাহারে জানিয়েছেন ওই কিশোরীর বাবা।  গত রোববার বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঁচ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন তিনি।

এর আগে গত শনিবার বরগুনা থানায় গেলে পুলিশ মামলা নিতে অস্বীকৃতি জানায় বলে অভিযোগ ওই কিশোরীর বাবার। পরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জুলফিকার আলী খান মামলাটি আমলে নিয়ে আসামি রাজিব মাসুদ, বাবু ও রুবিনার বিরুদ্ধে এজাহার এবং অন্যদের বিরুদ্ধে তদন্তের আদেশ দেন। মামলার অন্য আসামিরা হলো- মোস্তাফিজুর রহমান ও ফারুক পহলান।

নিখোঁজ পরীক্ষার্থীর বাবা জানান,  তার মেয়ে চলতি বছরে বরগুনার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় হতে এসএসসি পরীক্ষা অংশ নেবে। সে প্রতিদিন সকালে প্রাইভেট পড়তে যায়।  আসামি রাজিব মাসুদ প্রায়ই পথে-ঘাটে তাকে উত্যক্ত করত।

পরে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টায় বরগুনা শহরে প্রাইভেট পড়তে রওয়ানা দিলে আসামি রাজিব মাসুদ তাকে অপহরণ করে। পরীক্ষার্থীর বাবা আসামির মোবাইলে ফোন দিয়ে তার মেয়েকে ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করে ব্যর্থ হন। পরে অন্য আসামিদের কাছেও মেয়েকে ফেরত দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

কিশোরীর বাবা আরও জানান, অপহরণের পর কোথাও আটক রেখে তার মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। রাজিবকে অপহরণ ও ধর্ষণে সহায়তা করেছে অপর চারজন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ মামলা করতে আসেনি। আসামি রাজিব মাসুদের ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে