যশোর রোডের গাছ কাটা ছয় মাসের জন্য স্থগিত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ জানুয়ারি ২০১৮, ১৩:৪০ | আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০২ | অনলাইন সংস্করণ

যশোর-বেনাপোল সড়কের শতবর্ষী গাছ কাটার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে ছয় মাসের স্থিতাবস্থা জারি করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে ওই সব গাছ কাটা যাবে না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

গত রোববার যশোর রোডের গাছ কাটার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে সরকারকে নোটিশ পাঠিয়েছিলেন বেসরকারি স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শেখ মো. মহিবুল্লাহ। পরে গাছ কাটা বন্ধে রিট আবেদন করেন এ শিক্ষক।

বৃহস্পতিবার এ রিটের পক্ষে শুনানি শেষে রুলসহ আদেশ জারি করেন আদালত। এ সময় শিক্ষক মহিবুল্লাহর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ।

তিনি বলেন, ‘যশোর রোডের শতবর্ষী গাছ কাটার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে ছয় মাসের স্থিতাবস্থা জারি করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে এ গাছগুলো আর কাটা যাবে না।’

তিনি জানান, স্থিতাবস্থার পাশাপাশি আদালত রুলও জারি করেছেন। রুলে শতবর্ষী গাছগুলো কাটা কেন বেআইনী ঘোষণা করা হবে না এবং গাছগুলো সংরক্ষণ করে কেন চার লেনের সড়ক তৈরির ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

যশোর শহরের দড়াটানা মোড় থেকে বেনাপোল স্থলবন্দর পর্যন্ত ৩৮ কিলোমিটার সড়ক সম্প্রসারণের জন্য ২ হাজার ৩০০ গাছ কেটে ফেলা হবে। ৬ জানুয়ারি যশোরের জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে এবং স্থানীয় সাংসদসহ অন্যান্য পদাধিকারীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগেও সড়ক সম্প্রসারণের প্রয়োজনে গাছ কাটার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিবাদের মুখে বলা হয় যে গাছগুলো অক্ষত রেখেই সড়ক সম্প্রসারণ করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে