তারেককে নিয়ে আ. লীগের দাবি বানোয়াট : বিএনপি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:১৭ | আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২১:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

লন্ডনে বাংলাদেশের দূতাবাসে হামলার পেছনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের হাত আছে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন দাবি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও বানোয়াট বলে উল্লেখ করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন এ দাবি করেন রিজভী।

রিজভী বলেন, ‘তারেক রহমানকে নাজেহাল করার জন্য আওয়ামী লীগের নেতারা ক্রুব্ধ-উন্মত্ত বেসামাল হয়ে কথা-বার্তা বলেছেন। এরই প্রতিফল আমরা প্রতিদিন দেখছি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য-বিবৃতিতে।  লন্ডনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলার পেছনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান জড়িত বলে ওবায়দুল কাদের সাহেব যে দাবি করেছেন সেটি ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও অসত্য। আমি বিএনপির পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের এ ধরনের মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘শান্তি, সহমর্মিতা, সহাবস্থান বিএনপির অনুসঙ্গ। শহীদ জিয়া, বেগম খালেদা জিয়ার মতো তারেক রহমানও কখনোই নির্দেশ দেননি রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে দলের নেতা-কর্মীদের উষ্কানিমূলক অমানবিক নিষ্ঠুর আচরণ করতে। কখনো তারা নেতা-কর্মীদের সহিংসতার পথে ঠেলে দেননি। রাজনৈতিক বিরোধীদের প্রতি সহিষ্ণু আচরণ করা বিএনপির শিক্ষা।’

এ সময় রিজভী ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে বলেন, ‘বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হুমকির দৃষ্টান্তই কেবলমাত্র আওয়ামী নেতাদের। আপনি নিশ্চয় ভুলে যাননি একটা লাশের বদলে প্রতিপক্ষের দশটা লাশ ফেলে দেয়ার হুমকি কে দিয়েছিলেন? আপনি কি টাঙ্গাইলের এমপি লতিফ সিদ্দিকীর সেই হুমকির কথা বেমালুম ভুলে গেছেন। যিনি হুমকি দিয়ে বলেছিলেন বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হত্যা করতে। সদ্য প্রয়াত গাইবান্ধার এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন এক নিষ্পাপ কিশোরে পায়ে গুলি চালানোর নিষ্ঠুরতা ও নারায়ণগঞ্জের স্বনামধন্য এমপি শামীম ওসমানের হুমকির বচনটির কথা কি ভুলে গেছেন।’

গত সোমবার এক অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  সেতু মন্ত্রী ওবাদুল কাদের বলেন, ‘দুর্নীতি মামলায় বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাস ভবনে হামলা, ভাংচুর ও বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতি অবমাননার ঘটনায় নির্দেশদাতা হিসেবে তারেক রহমানের নাম নানা উৎস থেকে পাওয়া যাচ্ছে। তিনি লন্ডনে অবস্থান করে নানা ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছেন। দূতাবাস ভবনে হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইতোমধ্যে ইন্টারপোল সদর দপ্তরে জানানো হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নিতে এবং ঘটনায় জড়িত দণ্ডিত ব্যক্তিকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক প্রক্রিয়া চলছে।’

আজকের সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন—বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা  তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুন রায় চৌধুরী প্রমুখ। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে