ধরা পড়া সেই খুনি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

  মেডিকেল প্রতিনিধি

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৯:২৩ | আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর বাড্ডায় গুলি করে একজনকে হত্যার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় অস্ত্রসহ ধরা পড়া সেই সন্ত্রাসী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে।

আজ রোববার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে তার লাশ রেখে যায় পুলিশ।

বাড্ডায় থানার উপপরিদর্শক (এসআই )শামসুলের ভাষ্য, সন্ত্রাসী নুরুল ইসলাম নূরী বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। পরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ঢামেকে মর্গে পাঠায়। তবে কোথায়, কখন বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে সে ব্যাপারে কিছু জানাতে পারেননি তিনি।

গতকাল শনিবার মেরুল বাড্ডার কাঁচাবাজারে বাদশা মিয়া নামের একজনকে গুলি করে হত্যার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় হাতিরঝিলে জনতার হাতে ধরা পরে সন্ত্রাসী নুরুল। তার কাছ থেকে একটি রিভলবার ও ৬টি গুলি উদ্ধার করা হয়।

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী গতকাল বলেন, নিহত যুবক বাদশার বাড়ি টঙ্গীতে। দুজন একই গ্রুপের। তাদের মধ্যে এক সময় সুসম্পর্ক ছিল। আটককৃত নুরুল ইসলাম বড় একজন সন্ত্রাসী। অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরেই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে। ঘটনাস্থলে চার হামলাকারী উপস্থিত ছিল।
পুলিশের ধারণা, নুরুল ইসলাম বাড্ডার সন্ত্রাসী মেহেদী-রায়হান গ্রুপের সদস্য। পূর্বশত্রুতা ও মাদক ব্যবসার আর্থিক লেনদেনকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। নিহত বাদশা পুলিশের খাতায় মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে নাম অন্তর্ভুক্ত করা আছে।


 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে