সৎমামার ধর্ষণে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী!

  সখীপুর প্রতিনিধি

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৯:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে সৎমামার কাছে ধর্ষিত হয়ে এক কিশোরী আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে ওই কিশোরী বাদী হয়ে তার সৎমামা ও সৎমায়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মেয়েটির বাবা কয়েক বছর ধরে সৌদি প্রবাসী। সাত থেকে আট বছর আগে মেয়েটিকে রেখে তার মা অন্যত্র বিয়ে করে চলে যান। এরপর বছর চারেক আগে রোজিনা নামের এক নারীকে বিয়ে করেন ওই কিশোরীর বাবা। বাড়িতে কোনো পুরুষ মানুষ না থাকায় সৎমা রোজিনা আক্তার বছর দুয়েক ধরে তার ভাই হাসানকে বাড়িতে এনে রাখছেন। কিন্তু হাসান একা ঘরে থাকলে স্বপ্নে তাকে ‘বোবায়’ ধরে এমন অজুহাতে রোজিনা মেয়েটিকে তার মামার ঘরেই থাকতে বলেন। এক রাতে ঘুমোনোর পর সৎমামা তাকে ধর্ষণ করে।বিষয়টি তার মাকে জানালেও তিনি তা কানে তোলেননি। উল্টো তিনি মেয়েটিকে শাসিয়ে দেন। এরপর বিভিন্ন সময় মেয়েটিকে ধর্ষণ করে হাসান। মেয়েটি এখন আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

কিশোরীর চাচার অভিযোগ, প্রায় চার মাস ধরে বিষয়টি জানাজানি হলেও হাসান ও তার বোন বিষয়টি পাত্তা দিচ্ছিলো না। সৎমা রোজিনা তার ছোট ভাই হাসানসহ মেয়েটিকে রেখে বাবার বাড়ি চলে গেছেন।

তবে হাসানের দাবি, মেয়েটির চাচারা তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)নাজমুল হক ভুঁইয়া বলেন, শুক্রবার রাতে মেয়েটি ও তার চাচা থানায় হাজির হয়ে মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

 

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে