মিলনের শহীদ হওয়ার ঘটনা গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অনুপ্রেরণা : মির্জা ফখরুল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ মার্চ ২০১৮, ২০:৪১ | আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৮, ২৩:০২ | অনলাইন সংস্করণ

তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন মিলনের কারাগারে মৃত্যুর ঘটনা গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অনুপ্রেরণা বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ বুধবার বিকেলে মিলনের গাজীপুরের গ্রামের বাড়িতে তার পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দিতে গিয়ে এ মন্তব্য করেন ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মিলনের শহীদ হওয়ার ঘটনা গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অনুপ্রেরণার একটি নাম। তার পরিবার আজকে এক নিদারুণ অবস্থার মধ্যে দিনযাপন করছেন। আমি দলের  চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে সহমর্মিতা জানাতে এখানে এসেছি। আমরা সবসময় মিলনের পরিবারের পাশে থাকবো।’

গত ৬ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির মানববন্ধন থেকে ফেরার পথে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) মিলনকে গ্রেপ্তার করে। এর পর তিন দিন রিমান্ড শেষে রবিবার কারাগারে নেওয়ার পর অসুস্থ হন মিলন। সোমবার সকালে ঢাকা  মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল  নেওয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিএনপিসহ পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, পুলিশের নির্যাতনেই মিলনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ মির্জা ফখরুল ঢাকা থেকে প্রথমে মিলনের গ্রামের বাড়ি পূবাইলের মাজুখানে যান। সেখানে তিনি মিলনের বৃদ্ধ মা  হোসনে আরা এবং স্ত্রী শাহনাজ তানিয়া আখতারকে সান্তনা দেন।

এ সময় তারেক রহমানের পক্ষ  থেকে আর্থিক অনুদান মিলনের পরিবারের সদস্যদের কাছে তুলে দেন মির্জা ফখরুল। পরে বিএনপি মহাসচিব মিলনের কবর জিয়ারত করেন এবং কবরে  খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের পক্ষ  থেকে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন।

এ সময় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ফজলুল হক মিলন, কামরুজ্জামান রতন, সাঈদ  সোরাত,  জেলার সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়্যেদুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ নেতাকর্মী ছিলেন।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে