‘পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর নথি নকল’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:৪৯ | আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১৯:০০ | অনলাইন সংস্করণ

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন। ছবি : ফোকাস বাংলা

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাগরিকত্ব ইস্যুতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের উপস্থাপিত যুক্তরাজ্যের নথি নকল বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, ‘একটা দলিল নকল করবার সময় যখন ভুল হয়, তখন বুঝতে হবে যিনি নকল করছেন, তিনি টেনশনে আছেন। না হলে এত ভুল হয় না।’

আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদ নামে একটি সংগঠনের আয়োজনে ‘বর্তমান প্রেক্ষাপটে মানবাধিকার, আইনের শাসন ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন মাহমুদুর রহমান মান্না।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর উপস্থাপিত ওই নথির সূত্র ধরে মান্না বলেন, ‘ব্রিটিশ হোম ডিপার্টমেন্ট দিচ্ছে বাংলাদেশ অ্যাম্বাসিকে। বাংলাদেশ অ্যাম্বাসি নামে কিছু আছে? দ্যাট ইজ বাংলাদেশ হাই কমিশন। যারা কমনওয়েলথয়ের মধ্যে আছে তারা অ্যাম্বাসি বলে না। তারপর লেখছে স্যারস, ওরে বাবা রে এতগুলো স্যার কোথা থেকে আসল? চিঠি যখন লিখি, তখন ১০ জন স্যারের কাছে লিখি নাকি! এরপর এই চিঠির মধ্যে এরকম করে পাসপোর্ট কথা বলা হয়েছে, বোঝাই যাচ্ছে না, এটা কী কারণে দেওয়া হচ্ছে। সবশেষে যে সই করেছে তার কোনো নাম নেই। বানান ভুল আছে।’

মান্না বলেন, ‘এই গভর্নমেন্ট যখন এই রকমের দুই নম্বরি করছেন,প্রথম প্রথম কনফিডেন্ট ছিলেন, কিছু কিছু ভালোই করেছেন, কিন্তু যতই দিন যাচ্ছে, নির্বাচন কাছে আসছে, ততই তাদের মস্তিষ্কের মধ্যে ঘুরপাক বেশি হচ্ছে। এই সরকার সবচেয়ে দুর্বল দিশেহারা।’

সভায় মান্না বলেন, ‘যারা মনে করেন এই সরকার অজেয়, অনেক শক্তিশালী, কিছু করা যাবে না, তারা ভেতরের চেহারা দেখছেন না। এই সরকার ভেতরে ভেতরে খুবই দুর্বল, নড়েবড়ে।’

সভার প্রধান অতিথি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেন, ‘সরকার নাগরিকত্ব এবং ট্রাভেল ডকুমেন্টের পার্থক্যও বোঝে না।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে