খুলনা সিটি নির্বাচনের ‘অনিয়ম’ নিয়ে হতাশ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

প্রকাশ | ১৬ মে ২০১৮, ১৫:৫৭ | আপডেট: ১৬ মে ২০১৮, ২১:২০

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
পুরোনো ছবি

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম ও সহিংসতা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া ব্লুম বার্নিকাট। একইসঙ্গে তিনি এই অনিয়মের তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।  

আজ বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে সচিবালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।  

বার্নিকাট বলেন, ‘খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যে পরিমাণ সহিংসতা ও অনিয়মের অভিযোগ এসেছে, তাতে আমরা হতাশ। এই অনিয়ম, সহিংসতার অবশ্যই তদন্ত হওয়া উচিত এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।’  

তবে খুলনা সিটি নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ নিয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘খুলনা নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হওয়ায় আমরা খুশি।’

গতকাল মঙ্গলবার খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে বিপুল ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক।

ওই সিটিতে ২৮৯টি কেন্দ্রের মধ্যে মোট ২৮৬টির ঘোষিত ফল অনুযায়ী, নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের খালেক পান ১ লাখ ৭৬ হাজার ৯০২ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মঞ্জু ধানের শীষে পেয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৯৫৬ ভোট। নৌকা সমর্থকরা জোর করে ব্যালটে সিল মারে-এমন  অভিযোগে তিন কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে অন্তত ১০০ কেন্দ্রের ফল বাতিলের দাবি জানায় মঞ্জু। গতকাল রাতেই সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ দাবি জানান। আর বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আজ বুধবার ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেন। তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার পদত্যাগ দাবি করেন।