ভারতে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী যারা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৪ মে ২০১৮, ১৭:২৫ | আপডেট : ২৪ মে ২০১৮, ১৮:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল শুক্রবার ভারত সফরে যাচ্ছেন।  সফরে সংবাদকর্মী ছাড়াও রাজনীতিক, শিক্ষাবিদ, শিক্ষকসহ মোট ৪৪ জন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থাকবেন।

সফরসঙ্গীদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য ড. আখতারুজ্জামান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য মিজানুর রহমান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য ফারজানা ইসলাম, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান, ঢাবির ইমিরেটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান ও রফিকুল ইসলাম, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ পাঁচ মন্ত্রী, দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল ও যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল থাকবেন।

এ ছাড়াও দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মী, সংস্কৃতিকর্মী ও প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তারা এ সফরে যাবেন।

শেখ হাসিনা ও তার সফরসঙ্গীরা ২৫ মে ঢাকা ত্যাগ করবেন এবং সফর শেষে ২৬ মে দেশে প্রত্যাবর্তন করবেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে আগামী ২৫ ও ২৬ মে দুদিনের পশ্চিমবঙ্গ সফরে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। ২৬ মে পশ্চিমবঙ্গের আসানসোলে কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত বিশেষ সমাবর্তন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে সম্মানসূচক ডক্টর অব লিটারেচার (ডি. লিট) তুলে দেওয়া হবে।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী ২৫ মে পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে 'বাংলাদেশ ভবন' উদ্বোধন করবেন। এ অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে। একই দিন সকালে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত সমাবর্তনে ‘গেস্ট অফ অর্নার’ হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বাংলাদেশ ভবন’-এর রক্ষণাবেক্ষণ এবং সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনায় ১০ কোটি রুপির সমতুল্য এককালীন স্থায়ী তহবিলও গঠন করা হবে। বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া এ তহবিলের অর্জিত লভ্যাংশ থেকে প্রতিবছর দেশের দশ শিক্ষার্থীকে এম ফিল ও পিএইচডি ডিগ্রি অর্জনে ফেলোশিপ দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সঙ্গে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বাংলাদেশ ভবন নির্মাণ পরবর্তী পরিচালনা কার্যক্রম সংক্রান্ত’ একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হবে।

সফরকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে। সফরকালে ২৫ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন করবেন। সফরের শেষ দিনে প্রধানমন্ত্রী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের কিংবদন্তি বাঙালি নেতা নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর স্মৃতিবিজড়িত নেতাজী মিউজিয়াম পরিদর্শন করবেন।

এ সফরে পশ্চিমবঙ্গের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। প্রধানমন্ত্রী দুদেশের মধ্যে বিদ্যমান বাণিজ্য সম্প্রসারণের সুযোগ এবং বাংলাদেশের ব্যবসাবান্ধব পরিবেশের চিত্র পশ্চিমবঙ্গের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের কাছে তুলে ধরবেন। পাশাপাশি বাংলাদেশে অধিকতর বিনিয়োগের বিষয়ে তাদের উদ্বুদ্ধ করবেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে