বিএনপি ভারতের কাছে ক্ষমা চেয়েছে : হাছান

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ জুন ২০১৮, ১৬:১৩ | আপডেট : ১৩ জুন ২০১৮, ১৮:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি : আমাদের সময়
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি ভারতের কাছে অতীতের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছে। কিন্তু ভারত বলেছে, যারা অতীতে ভুল করেছে, ভবিষ্যতেও করবে না তার বিশ্বাস কী। অর্থাৎ তারা ভারতের বিশ্বাস অর্জন করতে পারেনি।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্ত দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় হাছান এ কথা বলেন।

সম্প্রতি বি. চৌধুরীসহ কয়েকজন নেতাদের বক্তব্যের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, বি. চৌধুরীরা বিএনপিকে নিয়ে নতুন করে আবার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। তারা পানি ঘোলা করে নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করতে চায়। কিন্তু এসব ষড়যন্ত্র করে আর কোনো লাভ হবে না।

হাছান বলেন, নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী যথা সময়ে হবে। নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। এই নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করবে। তবে নির্বাচনে কে বা কারা আসল কী আসল না তা দেখার বিষয় আওয়ামী লীগ বা সরকারের নয়। পানি ঘোলা করে কোনো লাভ হবে না।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা সম্পর্কে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে জেলে গেছেন। তিনি কোনো রাজনৈতিক মামলায় জেলে যাননি। কিন্তু বিএনপি দেশের মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে কথা বলে না। তারা শুধু খালেদা জিয়ার হাটু ব্যাথা নিয়ে কথা বলে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘খালেদা জিয়া অসুস্থ বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসার জন্য। কিন্তু তিনি তাতে রাজি নন। তিনি ইউনাটেড হাসপাতালে যেতে রাজি। এখন প্রশ্ন উঠেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশের খ্যাতিমান ডাক্তাররা বসেন, কিন্তু তার সেখানে অনিহা কেন? আমি সরকারের কাছে আহ্বান জানাব, খালেদা জিয়া ইউনাটেড হাসপাতালে কেন যেতে চান তা খুঁজে দেখার জন্য।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্ত দিবস উপলক্ষে হাছান বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে ১/১১-এর সময় গ্রেপ্তার করে দেশের গণতন্ত্রকে শিকলে বন্ধি করা হয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা সেই শিকল ভেঙে গণতন্ত্রকে মুক্ত করেছিলেন।

সংগঠনের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায়, সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে