ছুটির দিন সদরঘাটে উপচেপড়া ভিড়

  এম এইচ রবিন

১৩ জুন ২০১৮, ১৮:৪২ | আপডেট : ১৩ জুন ২০১৮, ২০:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

এই যে ছাইরা গেল....বরিশাল বরিশাল। ছাইরা গেল...ভোলা, বরগুনা, পিরোজপুর, হুলারহাট, শরিয়তপুর, মাদারীপুর, ভোলা, চাঁদপুর। আগে গেলে, আগে আসেন- লঞ্চের কলারম্যানদের এমন ডাকে মুখোরিত সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল।

আজ  বুধবার সরকারি ছুটির(শবে কদরেরছুটি) দিন হওয়ায় বাড়ি ফেরা মানুষের স্রোত নামে সদরঘাটে। ভোর থেকে সন্ধ্যা অবদি মানুষের উপচে পড়া ভীড়। সড়কের তীব্র যানজট আর টার্মিনালে দূর্ভোগ উপেক্ষা করে উৎসব প্রেমী বাঙালির ঈদ যাত্রার চিরচেনা দৃশ্য এই ঘাটে।

বৃদ্ধ, তরুণ, নারী-শিশু সব বয়সীর ঈদ যাত্রায় যেন আনন্দের ছাপ তাদের চোখেমুখে। হাতে, কাঁধে, পিঠে ব্যাগ চড়িয়ে ভিড় ঠেলে প্রতিযোগিতায় অবতীর্ণ হয়ে উঠতে হচ্ছে কাঙ্খিত লঞ্চে।

বিখ্যাত মোটিভেটর শিব খেরার ‘মানুষ জন্মসূত্রে বিজয়ী’ উক্তির যথাযথ দেখা মেলে এই প্রতিযোগিতায়। তিল ধারণের ঠাই নেই টার্মিনালে। হারিয়ে যাবার ভয়ে বাবার হাত ধরা সন্তান, স্বামীর হাতে স্ত্রী, ভাইয়ের হাতে বোন সতর্ক সবাই। এখানে আমি। এ দিকে এসো। ওখানে দাঁড়াও এমন ডাকাডাকিতে টার্মিনালে বাতাসেও যেন ঈরে বাজনা বাজে....রমজানের ওই রোজা শেষে এল খুশির ঈদ।

উত্তরা থেকে সদরঘাট পৌছতে সাড়ে তিন ঘণ্টা সময় লেগেছে জানিয়েছে তামান্না ইসলাম জানান, ‘ঈদ বাড়িতে উদযাপন করবো, এতোটুকু কষ্ট তো করতেই হয়। রোজা রেখে কষ্ট হচ্ছে। এখন লঞ্চে চড়তে পারলে সব কষ্ট সাথর্ক।’  

শিবচরের উদ্দেশ্যে যাওয়ার জন্য এসে লঞ্চ টার্মিনালে না দেখে বিরক্ত মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, লঞ্চ আগেই ছেড়ে গেছে। এখন আরেকটা আসবে, সে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে টার্মিনালে। স্ত্রী সন্তানসহ ব্যাগ নিয়ে এখানে অপেক্ষা করা নিরাপত্তাহীনতা বোধ করছি।
 
ঢাকা-চরভৈরবী রুটে যাতায়েতকারী মেঘনা রানী লঞ্চ থেকে নেমে এসে একাধিক যাত্রী অভিযোগ করেন, এই লঞ্চের কেবিনগুলো যেন কবুতরের বাক্স। নিরাপদ যাতায়েত অযোগ্য এ ধরণের জাহাজ কীভাবে সরকার অনুমোদন দেয়?
যাত্রী বোঝাই হওয়ায় এদিন অনেক লঞ্চ নির্ধারিত সময়ের আগে ঘাট ত্যাগ করেছে। তবে ঘরমুখো মানুষের চলাচল স্বাভাবিক রাখতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল কর্তৃপক্ষ। যাত্রীদের ভোগান্তি ও উপচেপড়া ভিড় রোধে বিভিন্ন রুটের লঞ্চ রাখা আছে স্ট্যান্ডবাই। আগামীকাল থেকে স্পেশাল সার্ভিসে এগুলো যাতায়েত করবে।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা-চাঁদপুর রুটে লঞ্চ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান রাকিব ওয়াটার ওয়েজ এবং আলআমিন এন্টার প্রাইজের পরিচালক মো. জাদের আহমেদ মুন্না আমাদের সময়কে বলেন, ‘আজ  পর্যন্ত তাদের তিনটি জাহাজ সার্ভিস লাইনে ছিল, আগামীকাল থেকে চারটি জাহাজ সার্ভিস দেবে।’ ভাড়া প্রসঙ্গে তিনি জানান, ঈদে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হয়না। অন্য সময়েও সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অনেক কম ভাড়া নেওয়া হয়।   

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) এর তথ্যানুযায়ী দেশের দক্ষিণাঞ্চলের অন্তত ৪১টি রুটে লঞ্চ যাতায়েত করছে। নিয়মিত যেখানে প্রতিনি ৮০ থেকে ৯০ টি লঞ্চ চলাচল করত। এখন ঈদে অতিরিক্ত সার্ভিস দিচ্ছে সব রুটে। ফলে এর সংখ্যা ১৫০ বেশি হবে।

বরিশালের উদ্দেশ্যে টার্মিনালে আসা মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন জানান, লঞ্চ সন্ধ্যায় ছাড়ার নিয়মিত সময় নির্ধারণ থাকলেও দুপুরে চলে আসছেন। ঈরে ভিড়ের কথা ভেবে আগে চলে আসছেন। সঙ্গে থাকা ট্রলি ব্যাগ ঘাট শ্রমিকদের টানাটানিতে হয়রানির অভিযোগ করেন তিনি।

লঞ্চ টার্মিনাল হকারমুক্ত করার কাজে অবহেলার জন্য টার্মিনালের পুলিশ, আনসার ও সংশ্লিষ্টদের অভিযুক্ত করেছিলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী মো. শাজাহান খান। গত ৪ মার্চ  ঢাকা সদরঘাটে নিরাপদ ও দূর্ঘটনামুক্ত নৌযান চলাচল নিশ্চিত করার ঈপূর্ব এক প্রস্তুতি সভায় মন্ত্রী তাদের প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছিলেন। এরপরও থেমে নেই যাত্রী হয়রানী, ঘাট শ্রমিকদের উৎপাতে অতিষ্ট যাত্রীরা।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএ এর যুগ্ম পরিচালক আরিফ উদ্দিন বলেন, ‘আমরা সবসময় চেষ্টা করি যাত্রীদের নিরাপদে স্বজনদের কাছে পৌঁছাতে। গতবারের মতো এবারও কোনো বিঘ্ন ছাড়াই যাত্রীরা তাদের গন্তব্যস্থলে যেন পৌঁছাতে পারে, সেজন্য নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। টার্মিনাল সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় থাকছে।’

ঢাকা নদীবন্দর নৌযান পরিদর্শক দীনেশ কুমার সাহা  জানান, এবার আবহাওয়ার বিষয়টি খুব গুরুত্ব য়ো হচ্ছে। যেন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে দ্রুত  নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত উঠানো যায়।

সরকারি নিয়মানুযায়ী ঈদ-উল-ফিতরের তিনদিনের ছুটি থাকে। আজ ২৭ রোজা শবে কদরের ছুটি। ঈদ ছুটির আগে আগামীকাল শেষ কার্যদিবস। শুক্রবার থেকে ঈদের ছুটি। বর্ষপঞ্জী হিসেবে শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটি রয়েছে। শুক্রবার চাঁদ দেখা গেলে শনিবার ঈদ। ৩০ রোজা হলে পরদিন রবিবার ঈদ-উল-ফিতর। এমন হলে ছুটি আরেক দিন বাড়বে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে