পিএইচপি কুরআনের আলো বিজয়ী লাবিব

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ জুন ২০১৮, ২১:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

পিএইচপি গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও কুরআনের আলো ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত পিএইচপি কোরআনের আলো প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন নেত্রকোনার সিফগাতুল্লাহ্ খান লাবিব। এছাড়া দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছেন যথাক্রমে চট্টগ্রামের তারেক মনোয়ার ও সিলেটের মামনুন সাইদ।

আজ বুধবার রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে অনুষ্ঠিত হয় দেশের জনপ্রিয় এই কুরআন তিলোয়াত প্রতিযোগিতার গ্রান্ড ফিনালে। দশমবারের মতো আয়োজিত এই প্রতিযোগীতার গ্রান্ড ফিনালে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন পিএইচপি গ্রুপের চেয়ারম্যান সূফী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ও এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুইয়াসহ সমাজের কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ ও কুরআন বিশেষজ্ঞরা।

প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও সূফী মিজানুর রহমানসহ অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা।

প্রতিযোগিতায় ১ম  স্থান অধিকারি লাবিবের হতে তুলে দেওয়া হয় চার লাখ টাকার চেক এবং ২য় ও ৩য় স্থান অধিকারিদের হাতে তুলে দেওয়া হয় যথাক্রমে তিন ও দুই লাখ টাকার চেক। একই সঙ্গে তিন জনকেই দেওয়া হয় বিনামূল্যে ওমরা হজ পালনের সুযোগ। এই তিন গুনী শিশু কুরআনের ধারকের ওস্তাদদের (শিক্ষক) হাতে একটি করে পিএইচপির মটর সাইকেল তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া সবচেয়ে সুরেলা তিলোয়াতকারির হাতে তুলে দেওয়া হয় বিশেষ পুরষ্কার এবং প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারী বিশজন অসহায় প্রতিযোগীদেরকে বিশেষ শিক্ষাবৃত্তিও দেয়া হয় এই অনুষ্ঠানে।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমি এ সকল গুনী ছোট্ট শিশুদের দেখে অবিভুত। এদের দিকে তাকিয়ে আছে সমাজ। এরাই সমাজকে আলোকিত করবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের সমাজে মূল্যবোধের বড় অভাব। এই কুরআন আমাদের মূল্যবোধ শেখায়। আমি আশা করব এই ছোট্ট শিশুদের মতো আমরাও কুরআন থেকে সুন্দর জীবন গঠনের ও মূল্যবোধের শিক্ষা নেব।’

পিএইচপি গ্রুপের চেয়ারম্যান সূফী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমাদের দেশে আজ অনেক সমস্যা। অথচ কুরআনে সুন্দর জীবন গঠনের নির্দেশনা ও নিয়ম দেয়া আছে আমরা অনুসরন করি না। তাই এই শিশুদের মতো আমাদের কুরআনকে ধারন করতে হবে। সুন্দর জীবন গড়ে তুলতে হবে।’

এ সকল ক্ষুদে কুরআন হাফেজদের প্রতিভার কথা তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতি সূফী মিজানুর বলেন, ‘দেশের প্রতিভাদেরকে সরকার অনেক প্রনোদনা দেন। আমি অনুরোধ করব সরকার এই সকল ক্ষুদে কুরআনের হাফেজদের জন্যে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় যেন বিশেষ সুবিধা দেওয়ার ব্যবস্থা রাখেন।’

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলা ক্যাটের সিইও নজরুল ইসলাম যাকির, কুরআনের আলো ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবু ইউসূফ ও সাবেক বিজিএমইএ-এর সভাপতি আতিকুল ইসলামসহ দেশের অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গরা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে