দারিদ্র যাদের অহংকার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৬ জুলাই ২০১৮, ২৩:২৪ | আপডেট : ০৭ জুলাই ২০১৮, ০১:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

দারিদ্র্যের কারণে লেখাপড়া বন্ধের উপক্রম হয়েছিল এমন প্রায় সহস্রাধিক শিক্ষার্থীকে শিক্ষা সহায়তা দিয়েছে দেশের প্রথিতযশা আবাসন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের দাতব্য প্রতিষ্ঠান এসইএল চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন।

আজ শুক্রবার রাজধানীর পান্থপথে এসইএল সেন্টারে দারিদ্র্যের কাছে হার না মানা এমন অর্ধশত অদম্য মেধাবীকে নিয়ে ‘স্বপ্ন দেখার গল্প’ শিরোনামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এসইএল চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন। সেখানে তরুণরা শোনান তাদের সংগ্রামের কথা।

অনুষ্ঠানে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থেকে আসা কলেজ পড়ূয়া লিমন ইসলাম গর্ব করেই বললেন, 'আমার বাবা দিনমজুর। তার রক্ত পানি করা টাকায় সংসার চলছে না। তারপরও যুদ্ধ করেই পড়াশুনা চালিয়ে যাচ্ছি। দারিদ্রতা আমার অহংকার। কারণ দারিদ্রতা না থাকলে ক্ষুধা ও কষ্টের অর্থই বুঝতাম না।'

মায়ের কোলে চড়েই গোপালগঞ্জ থেকে এসেছেন পঙ্গু সাইফুল ইসলাম। তিনি মকসুদপুর কলেজে ডিগ্রিতে পড়ছেন। শারীরিক অক্ষমতার সঙ্গে যুদ্ধ করে তিনি কঠিন পথ পাড়ি দিচ্ছেন। তুবও পঙ্গু এই মানুষটির চোখে-মুখে স্বপ্ন জয়ের অদম্য ইচ্ছা। তিনি হারতে চান না, কষ্টকে সঙ্গী করেই বেঁচে থাকতে চান। স্বপ্ন পূরণ করে আশপাশের মানুষকে আলোকিত করতে চান।

দিনব্যাপী চলা অনুষ্ঠানে উপস্থিত মেধাবীদের সংগ্রাম, স্বপ্ন আর সংকল্পের গল্প শোনেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এসইএল চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও দ্য স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল।

আবদুল আউয়াল শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, 'লক্ষ্যহীন জীবন মৃত্যুর সমান। একজন শিক্ষার্থীর মধ্যে যদি আত্মবিশ্বাস শক্তি, ভবিষ্যৎ স্বপ্ন থাকে তাহলে তার জীবনের গতি-চেতনা তাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। একজন শিক্ষার্থীর যদি আত্মবিশ্বাস না থাকে, স্বপ্ন না থাকে তাহলে একসময় জীবনের গতি-চেতনা থেমে যাবে। এ কারণে প্রতিটি শিক্ষার্থীকেই জীবনের লক্ষ্য ঠিক করে তাকে এগোতে হয়।'

আবদুল আউয়াল আরও বলেন, 'দরিদ্র মেধাবীরা সুযোগ পেলেই হতে পারে দেশের অহংকার। সেই শিক্ষার্থীদের অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর আত্মপ্রত্যয়ের কাছে হার মেনেছে সকল দারিদ্রতা। জীবনের প্রতিটি বাঁকে তারা দারিদ্রতার কারণে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। তবুও তারা পিছু হটেনি। মনে সাহস ও প্রবল ইচ্ছাশক্তি নিয়ে এগিয়ে গেছে।'

তিনি এসব শিক্ষার্থীর পড়ালেখার খরচ ও স্বপ্ন পূরণে পাশে থাকার ঘোষণাও দেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে