সংবাদ সম্মেলনে হাছান মাহমুদ

‘প্রথম শ্রেণির কয়েদির চেয়েও বেশি সুবিধা নিচ্ছেন খালেদা জিয়া’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ জুলাই ২০১৮, ১৫:২৯ | আপডেট : ১৯ জুলাই ২০১৮, ১৯:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, 'বেগম খালেদা জিয়া যদি অসুস্থ হয়েই থাকেন তাহলে কিভাবে সুস্থ মস্তিষ্কে হাসপাতাল নির্ধারণের কথা বলেন? কারাগারে বেগম খালেদা জিয়া প্রথম শ্রেণির কয়েদির চেয়েও বেশি সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছেন।'

খালেদা জিয়া অসুস্থ, তিনি হাঁটতে পারছেন বলে রুহুল কবির রিজভীর দাবি প্রসঙ্গে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। 

রিজভীর বক্তব্যের সমালোচনা করে হাছান মাহমুদ বলেন, দেশে যদি গণতন্ত্র না থাকে তাহলে বিএনপি সংবাদ সম্মেলন করে অশোভন ভাষায় বক্তব্য দিতে পারত না। রিজভী আহমেদ সব সময় সুবিন্যস্ত অশোভন ভাষায় কথা বলেন। 

আওয়ামী লীগের এই প্রচার সম্পাদক বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আওয়ামী লীগের অফিসে বহুবার হামলা চালিয়েছে, ধানমন্ডির অফিসেও হামলা চালিয়েছিল। তখনকার বিরোধী দলের নেত্রী ও বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেলা নেতাদের নিয়ে আলোচনা করার সময় পুলিশ নেতাদের ওপর হামলা চালিয়েছিল। আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের রাস্তার ওপর পুলিশ দিয়ে পেটানো হয়েছিল। কিন্তু গত নয় বছর ধরে বিএনপির নেতাদের কোনো জনসভায় পুলিশ হামলা করেনি। মারা হয়নি বোমা।

২০০৪ সালে তারেক জিয়ার নির্দেশনায় প্রধানমন্ত্রীর ওপর গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিল দাবি করে হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকার সময় আওয়ামী লীগের অফিসের সামনে সব সময় ব্যারিকেট ছিল। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকে বিএনপির অফিসের সামনে ব্যারিকেট দেওয়া হয়নি।

কোটা আন্দোলন নিয়ে রিজভীর বক্তব্যের সমালোচনা করে হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির বক্তব্যের মধ্যেই প্রমাণিত হয়, কোটা আন্দোলন ছিল রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলক। যে কথাটি আওয়ামী লীগ কোটা আন্দোলনের শুরু থেকেই বলে আসছিল। কোটা আন্দোলনে বিএনপি এতদিন ভিতরে থেকে সমর্থন করলে এখন প্রকাশ্যে সমর্থন করছেন। রিজভীর বক্তব্যেই প্রমাণিত হয়েছে এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলক আন্দোলন।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে