ব্র্যাকের সঙ্গে ওরিসিস গ্রুপের কাজ শুরু

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ আগস্ট ২০১৮, ২২:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের সঙ্গে কাজ শুরু করেছে বিনিয়োগ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ওসিরিস। বাংলাদেশে ব্র্যাকের মাধ্যমে ছয়টি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে উন্নয়নের লক্ষ্যে ওসিরিস গ্রুপ বিনিয়োগ করবে।

ক্ষেত্রগুলো হচ্ছে- স্বাস্থ্যসেবা, জলবায়ু পরিবর্তন, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, আর্থিক অন্তর্ভুক্তি, খাদ্য ও কৃষি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি।

ব্র্যাকের সিনিয়র মিডিয়া ম্যানেজার (কমিউনিকেশনস) মাহবুবুল আলম কবীর জানান, ওসিরিস গ্রুপ বিশ্বের বিভিন্ন বিকাশমান বাজারগুলোতে বিনিয়োগ করে থাকে। সম্প্রতি তারা এশিয়ার কয়েকটি দেশে বিনিয়োগ শুরু করেছে। ওসিরিস গ্রুপের বিনিয়োগের ধরন ‘ইমপ্যাক্ট ইনভেস্টিং’ নামে পরিচিত। এ ধরনের বিনিয়োগের লক্ষ্য কেবল আর্থিক মুনাফা নয়, বরং সামাজিক ক্ষেত্রেও শক্তিশালী ও ইতিবাচক পরিবর্তন আনা। এই ধারণার ওপর ভিত্তি করে ২০১৭ সালে সারা বিশ্বে ২২৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে।

ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারপারসন ফজলে হাসান আবেদ বলেন, ‘ওসিরিস গ্রুপের সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আমাদের অর্জন ও জ্ঞান ভাগ করে নেওয়ার একটা দারুণ সুযোগ পাচ্ছি আমরা। আশা করছি, এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে মানুষের জীবনমান উন্নয়নের কাজটি আরও জোরদার হবে।’

ওসিরিস গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা তানভীর গণি বলেন, ‘আমরা বিনিয়োগকারীদের মধ্যে একটা ইতিবাচক প্রবণতা দেখতে পাচ্ছি। তারা ক্রমশ সেইসব খাতে আগ্রহী হচ্ছেন, যেখানে বিনিয়োগের ফলে মানুষের জীবনে সত্যিকারের উন্নয়ন ঘটে। বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশ হওয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এর ফলে, এদেশে বিনিয়োগের এমন অনেক সুযোগ তৈরি হচ্ছে যার মাধ্যমে মানুষ শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও ডিজিটাল সেবা পেতে পারে।’

ব্র্যাকের পরিচালক আসিফ সালেহ বলেন, ‘বিশ্ব এখন অনুদানভিত্তিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বাজারভিত্তিক দৃষ্টিভঙ্গির দিকে অগ্রসর হচ্ছে। সামাজিক পরিবর্তনের লক্ষ্যে একটি নতুন মডেল বিকশিত হচ্ছে যা প্রচলিত উন্নয়ন মডেল থেকে পুরোপুরি ভিন্ন। আজকের পৃথিবীতে উন্নয়ন, সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগ, বেসরকারি খাতের মধ্যে পার্থক্য ক্রমশ কমে আসছে। এই পরিধিতিতে আমরা যেসব দেশে কাজ করছি, তার সবগুলোতেই ইমপ্যাক্ট ইনভেস্টমেন্টের গুরুত্ব বাড়ছে।’

ওসিরিস গ্রুপের পার্টনার সাঈদ খান বলেন, ‘টেকসই উন্নয়ন মডেল উদ্ভাবনের দিক থেকে বিশ্বে সবার চেয়ে এগিয়ে ব্র্যাক। মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ব্র্যাকের অবদান অদ্বিতীয়। ইমপ্যাক্ট ইনভেস্টিংয়ের ধারণাটি তৈরি হওয়ারও অনেক আগে থেকেই ব্র্যাক নিজের মতো করে কাজটি করে যাচ্ছে। তাই ব্র্যাকের সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমরা আনন্দিত।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে