সাজানো মামলায় ব্যবসায়ীকে অস্ত্র দিয়ে গ্রেপ্তারের অভিযোগ

  মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১২ | অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় পুলিশের সাজানো মামলায় শামীম মৃধা নামে এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের অভিযোগ উঠেছে।

শামীম মৃধার পরিবারের পক্ষ থেকে তার স্ত্রী লিয়া আক্তার গতকাল মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও দ্রুত মুক্তির দাবি জানান।

লিয়া আক্তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘গত ৩০ আগস্ট শামীম মৃধা স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসলে পুলিশ ৫ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে গ্রামের বাড়ি থেকে শাশীম মৃধাকে আটক করে। আটকের দুদিন পর পিরোজপুর-মঠবাড়িয়ার গুদিঘাটা সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে উপ-পরিদর্শক (এসআই ) জাহিদ হাসান বাদী হয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীনসহ ৮৫ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় শামীম মৃধাকে প্রধান আসামি দেখিয়ে রহস্যজনক কারণে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।’

লিয়া আক্তার আরও বলেন, ‘আমার স্বামী রাজনীতিতে সক্রিয় নয় তবুও পুলিশ বাড়ি থেকে ধরে এনে দেশীয় অস্ত্রসহ গুদিঘাটা থেকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে মামলার প্রধান আসামি করে। আমি আমার স্বামী শামীম মৃধার দ্রুত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও মুক্তির দাবি জানাই।’

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম ছরোয়ার মিথ্যা মামলা গ্রহণের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘গ্রেপ্তারকৃত শামীম মৃধার বিরুদ্ধে বিএনপিকে অর্থ যোগান দেওয়ার অভিয়োগ রয়েছে।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে