দাবি রিজভীর

সারা দেশে ৩ হাজারের বেশি গায়েবি মামলা, আসামি ৩ লাখ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪০ | আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা দেওয়া হয়েছে। তাদের সঙ্গে এই মামলায় আরও আসামি করা হয়েছে— বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আমিনুল হক, সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, খালেদা জিয়ার আইনজীবী ও বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়াসহ অজ্ঞাত আরও নেতাকর্মীকে।

এ বিষয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘কোনো কারণ ছাড়াই বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে প্রাপ্ত তথ্যমতে গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ঢাকাসহ সারা দেশে গায়েবি মামলা দায়ের করা হয়েছে তিন হাজারের অধিক। আসামি করা হয়েছে নামে- বেনামে প্রায় তিন লাখ নেতা-কর্মীকে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে সাড়ে তিন হাজারের অধিক নেতা-কর্মীকে।’

আজ শুক্রবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ‘গতকাল বেলা ১১ টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯০ জনের গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া গেছে। দেশে এখন তুঘলকি শাসন চলছে।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘অসুস্থ দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের বিরুদ্ধেও পল্টন থানায় মামলা দেয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, রেজাক খান, মাহবুব হোসেনদের মতো প্রবীন আইনজীবীদের নামেও মামলা দেয়া হয়েছে। বড় কথা হচ্ছে কোথাও কোনো ঘটনা না ঘটলেও তাদের নামে এসব মামলা দেয়া হয়েছে। কারণ, সরকার একতরফা নির্বাচন করতে যাচ্ছে। এ সব মামলাই হচ্ছে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে।’

খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘মামলাগুলো সব ভুয়া। কারণ গত ১১ ও ১২ তারিখের ঘটনা দেখিয়ে মামলা করা হয়েছে। ১২ তারিখ  তো আমি খালেদা জিয়ার চ্যারিটেবল মামলায় জেলখানার আদালতে ছিলাম। ওখানে সব মিডিয়ার লোকেরা আমাকে দেখেছে। সেখান থেকে কীভাবে ককটেল মারলাম কিছু বুঝলাম না। হয়রানি করার অভিযোগে এ মামলাগুলো করা হয়েছে।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে