খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্তির দাবি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

পুরোনো ছবি

কারাবন্দি অসুস্থ খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ডে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) গঠিত মেডিকেল বোর্ডে দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের রাখা হয়নি যা বিদ্বেষপ্রসূত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ বলে আমরা মনে করি।’

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ‘কারা কর্তৃপক্ষের মৌখিক বার্তা অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত পাঁচ চিকিৎসকের নাম দলের পক্ষ থেকে প্রেরণ করা হয়েছিল। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নেওয়ায় এটাই প্রমাণ হয় যে, সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে তিলে তিলে নিঃশেষ করতে চায়। এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনার ইঙ্গিতবাহী। আমি আবারো দলের পক্ষ থেকে দৃঢ়কণ্ঠে বলতে চাই, দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।’

গত ৯ সেপ্টেম্বর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে সাত সদস্যের জাতীয় স্থায়ী কমিটি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে সাক্ষাতের সময়েও মন্ত্রী মেডিকেল বোর্ডে দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অন্তর্ভুক্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন বলেও জানান রিজভী।

সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ডে ক্ষমতাসীন দলের চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি তথ্য প্রমানসহ তুলে ধরে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘বোর্ডে অন্যতম সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী নারায়নগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নারায়নগঞ্জ- ৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) প্রার্থী, তিনি দলীয় প্রার্থী হিসেবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যাপক নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপর সদস্য ডা. হারিসুল হক আওয়ামী লীগের সমর্থিত চিকিৎসক সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের বিএসএমএমইউ’র ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। এছাড়া অধ্যাপক তারেক রেজা আলী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য। সুতরাং সরকারের গঠিত বোর্ডে মনোনীত চিকিৎসকগণকে বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতার চেয়ে সরকার দলীয় আনুগতের ক্ষেত্রকেই অধিক গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের প্রতি অনুগত চিকিৎসকগনের অন্তর্ভুক্তকৃত মেডিকেল বোর্ডের মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে যথাযথ চিকিৎসা ও তার শারীরিক পর্যবেক্ষণ সঠিকভাবে প্রতিফলিত হবে না।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন— বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, অর্পনা রায় প্রমুখ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে