ধর্ষণে গর্ভবতী প্রবাসীর স্ত্রী, পরে সন্তান প্রসব

  নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও সন্তান প্রসব হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার বটতলি ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ধর্ষক আবুল কাশেমকে (২৪) গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। তিনি কাশিপুর গ্রামের মৃত ইউনুছ মিয়ার ছেলে আবুল কাশেম।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের প্রবাসীর স্ত্রী গত বছরের ২০১৭ সালের ১০ অক্টোবর রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাহিরে যায়। এ সময় সুযোগ বুঝে তার ঘরে ঢুকে পড়ে একই গ্রামের আবুল কাশেম। পরে অনেক রাতে ওই নারীর মুখ চেপে ধরে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এর পর থেকে বিভিন্ন সময় ব্ল্যাকমেইল করে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে আবুল কাশেম। এক পর্যায়ে ওই নারী গর্ভবতী হয়ে পড়েন। সম্প্রতি তার স্বামী বাড়িতে এসে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে সন্দেহ করেন। এ সময় ওই নারী স্বামীকে সব খুলে বলেন। পরে গত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সালে ধর্ষিতা ওই নারী একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেন।

সন্তান প্রসবের পর আজ মঙ্গলবার ওই ধর্ষিতা বাদী হয়ে নাঙ্গলকোট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এর পরই পুলিশ বটতলি এলাকা থেকে ধর্ষক আবুল কাশেমকে আটক করে কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে গতকাল মঙ্গলবার নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম পিপিএম জানান, ধর্ষিতা বাদী হয়ে অভিযোগ করলে ধর্ষককে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে