বিএনপি নেতা সালাউদ্দিনের অনুপ্রবেশ মামলার রায় ৯ নভেম্বর

  অনলাইন ডেস্ক

১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:৩৭ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতে আটক বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধের দায়ের করা অনুপ্রবেশের মামলার রায় পিছিয়ে আগামী ৯ নভেম্বর নির্ধারণ করেছেন শিলং আদালত। চলতি বছরের ১৩ আগস্ট মামলার বিচারিক কার্যক্রম শেষ হওয়ার পর থেকেই রায়টি অপেক্ষমান রাখেন আদালত।

এর আগে গত ২৮ সেপ্টেম্বর শিলংয়ের আদালত রায় ঘোষণার তারিখ পিছিয়ে রায়ের জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

এরই মধ্যে সালাহউদ্দিন আহমেদ আদালতকে জানিয়েছেন, ২০১৫ সালে মার্চে তাকে ঢাকার উত্তরার বাসা থেকে অপহরণ করা হয়। এর প্রায় দুই মাস পর কে বা কারা তাকে শিলংয়ে ফেলে রেখে যায়। আদালতে তিনি অনুপ্রবেশের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

আদালত সূত্রের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, রায়ে সালাহউদ্দিন আহমেদ দোষী প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ তার ৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। তবে আদালত ন্যায়বিচার করে রায় দেবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন সালাহউদ্দিন আহমেদ।

এ ঘটনায় এক মাস পর ২০১৫ সালের ১১ মে মাসে ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা করে মেঘালয় রাজ্যের শিলং পুলিশ। প্রায় সাড়ে তিন বছর বিচারকাজ চলার পর আজ রায় দিতে যাচ্ছেন আদালত।

২০১৫ সালের মার্চে ঢাকার উত্তরা থেকে নিখোঁজ হওয়ার প্রায় দুই মাস পর, মে মাসে ভারতে মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ের একটি রাস্তায় তাকে উদভ্রান্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

তবে কে বা কারা তাকে ওখানে নিয়ে এসেছিল, বা কীভাবে তিনি ঢাকা থেকে শিলংয়ে এসে উপস্থিত হলেন, সে ব্যাপারে সালাউদ্দিন আহমেদ কিছুই জানাতে পারেননি।

মামলায় কিছু দিনের মধ্যেই অবশ্য জামিন পান তিনি। তখন থেকেই শিলংয়ের একটি বেসরকারি গেস্ট হাউসে আছেন এই বিএনপি নেতা। অসুস্থতার জন্য তার চিকিৎসাও চলছে সেখানে। এরমধ্যে কিডনিসহ নানা সমস্যায় দিল্লিতেও তার বেশকিছু স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। মাঝে মাঝে বাংলাদেশ থেকে স্ত্রী-সন্তান ও বন্ধুবান্ধবরা সেখানে দেখা করেন তার সঙ্গে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে