যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হাতুড়িপেটা, তরুণ লীগ নেতা কারাগারে

  বান্দরবান প্রতিনিধি

১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৬:৫৮ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ২২:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

যৌতুকের মামলায় বান্দরবান জেলা তরুণ লীগের আহ্বায়ক ডা. প্রিন্স সেনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার দুপুরে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল হাকিম তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এ মামলায় প্রিন্স সেন উচ্চ আদালতের দেওয়া আগাম জামিনে ছিলেন। এ মেয়াদ শেষ হওয়ায় নিম্ন আদালতে হাজিরা দিতে গেলে আজ দুপুরে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল হাকিম তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গত ৩ সেপ্টেম্বর ক্যাচিংঘাটার নিজ বাসায় বান্দরবান জেলা তরুণ লীগের আহ্বায়ক ডা. প্রিন্স সেন যৌতুকের জন্য কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্ত্রী রুপা দাশকে হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে বেদম মারধর করে। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে সে পালিয়ে যায়।

পরে প্রতিবেশীরা রুপার পরিবারকে বিষয়টি জানালে তার ভাইয়েরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে রুপা বাদী হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করে। এরপর থেকে পলাতক ছিলেন প্রিন্স।

রুপার পরিবার জানায়, বিয়ের পর থেকে দীর্ঘ আট বছর ধরে যৌতুকের জন্য রুপার ওপর অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছে প্রিন্স। এর আগেও তার বিরুদ্ধে করা মামলায় ৯ মাস জেল খেটেছিল সে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে