যে কারণে আবার সভা বর্জন করলেন নির্বাচন কমিশনার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:০৩ | আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ০১:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

বাকস্বাধীনতা ও ভাব প্রকাশের স্বাধীনতা না পাওয়ায় ‘নোট অব ডিসেন্ট’ বা আপত্তি জানিয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সভা বর্জন করেছেন বলে জানিয়েছেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

আজ সোমবার বেলা ১১টায় রাজধানীর আগারগাঁও ইসি ভবনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৩৬তম প্রস্তুতি সভা শুরু হয়। সভা শুরুর  ৭ মিনিটের মাথায় নোট অব ডিসেন্ট দিয়ে বেরিয়ে যান মাহবুব তালুকদার।

ওই সময় অপেক্ষমান গণমাধ্যম কর্মীদের মাহবুব বলেন, ‘আমি নোট অব ডিসেন্ট দিয়েছি। আমি সভা থেকে বেরিয়ে এসেছি।’ তবে কী কারণে বেরিয়ে এসেছেন তা তাৎক্ষণিকভাবে জানাননি তিনি। পরে সে কারণ জানা যায়। 

নোট অব ডিসেন্টে মাহবুব তালুকদার উল্লেখ করেন, ‘বাকস্বাধীনতা ও ভাব প্রকাশের স্বাধীনতা সংবিধান প্রদত্ত আমার মৌলিক অধিকার। নির্বাচন কমিশন কোনোভাবেই আমার এই অধিকার খর্ব তরতে পারে না। এমতাবস্থায় অনন্যোপায় হয়ে আমি নির্বাচন কমিশনের এরূপ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নোট অব ডিসেন্ট প্রদান করছি এবং এর প্রতিবাদস্বরূপ কমিশনের সভা বর্জন করছি।’

নির্বাচন প্রস্তুতির নিয়ে আজকের গুরুত্বপূর্ণ সভায় দুটি এজেন্ডার মধ্যে ছিল—আগামী জাতীয় নির্বাচন সম্পর্কে সবশেষ প্রস্তুতি নিয়ে ইসি সচিব থেকে কমিশনারদের অবহিতকরণ ও হিজড়া জনগোষ্ঠীর ভোটার তালিকা।

নির্বাচন কমিশনের একটি সূত্র জানায়, মাহবুব তালুকদার তার বক্তব্য নির্বাচনে সেনা মোতায়েন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন, নির্বাচন কমিশনের সক্ষমতা বৃদ্ধি, সরকারের জন্য নির্বাচন নিয়ে সংলাপসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করতে চেয়েছিলেন।

মাহবুব তালুকদার সভা থেকে বেরিয়ে গেলেও সভার কাজ চলেছে। সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ ও অন্য কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ৩০ আগস্ট একাদশ নির্বাচনে ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) ব্যবহারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে ইসি সভা বর্জন করেন মাহবুব তালুকদার। তখনও নোট অব ডিসেন্ট দেন তিনি।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে