বড়পুকুরিয়ায় চীনা শ্রমিকের মৃত্যু

  ফুলবাড়ী প্রতিনিধি

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ২২:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে পানি মিশ্রিত কয়লা ও পাথরের নিচে চাপা পড়ে সুনজিংশেং (৪৮) নামের এক চীনা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রেজাউল ইসলাম (৪৫) নামের এক বাংলাদেশি শ্রমিক আহত হয়েছেন।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ৪টায় এ ঘটনা ঘটে। রেজাউল ইসলাম খনি সংলগ্ন কালুপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

আহত শ্রমিক রেজাউল ইসলাম বলেন, ‘বুধবার রাত ১১টার শিফটে কাজে যোগ দিয়ে ১৩০৪ কোল ফেইসের ভূগর্ভ থেকে পানি মিশ্রিত কয়লা ও পাথর ভূপৃষ্ঠে ওঠানোর কাজ করছিলেন। কিন্তু রাত সাড়ে ৩টায় হঠাৎ হলার বন্ধ (জাম) হয়ে যাওয়ায়, হলার থেকে পানি মিশ্রিত কয়লা, পাথর বেল্টে পড়ছিল না। তাই তাকে নিয়ে চীনা শ্রমিক সুনজিংশেং হলারের মুখ পরিষ্কার করছিলেন। কিন্তু এ সময় হলারের মুখ আকস্মিকভাবে খুলে যায়।

এতে হলারে জমে থাকা পানি মিশ্রিত কয়লা ও পাথর চীনা শ্রমিক ও রেজাউল ইসলামের শরীরের ওপর পড়ে। এতে দুজনই পানি মিশ্রিত কয়লা ও পাথরের নিচে চাপা পড়েন। পরে আহত দুজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে  নেওয়া হলে চীনা শ্রমিককে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।’

চীনা শ্রমিক নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বড়পুকুরিয়া পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিদর্শক মো. সিরাজুল হক বলেন, ‘নিহত চীনা শ্রমিক সুনজিংশেং’র লাশ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে।’

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের গণসংযোগ কর্মকর্তা মো. বদরুল আলম বলেন, ‘বন্ধ হওয়া হলারের মুখ পরিষ্কার করার সময় আকস্মিকভাবে হলারে থাকা পানি মিশ্রিত কয়লা ও পাথর চীনা শ্রমিক সুনজিংশেং ও বাংলাদেশি শ্রমিক রেজাউল ইসলামের শরীরের ওপর পড়ে। এতে রেজাউল ইসলাম নিজেকে বাঁচাতে পারলেও চীনা শ্রমিক ওই মালামালের স্তুপের নিচে চাপা পড়ে। তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।’  

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে