৩০ জানুয়ারি একাদশ জাতীয় সংসদ অধিবেশন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৩৪ | আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন বসছে আগামী ৩০ জানুয়ারি। ২৮ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর বসবে এই অধিবেশন। ওই দিন বিকেল ৩টায় সরকারী ও বিরোধী দলের অংশগ্রহণে শুরু হবে নতুন সংসদ।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বুধবার সংসদের এই অধিবেশন আহ্বান করেন বলে সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয়েছে।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় নিয়ে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। গতবারের মতো এবারও বিরোধী দল হিসেবে সংসদে উপস্থিত থাকবে জাতীয় পার্টি। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিরোধী দলীয় নেতার আসনটি ছিল এরশাদ পত্নী রওশনের। এবার তার পরিবর্তন ঘটিয়ে আসনটিতে বসছেন এরশাদ খোদ।

বিরোধী দলীয় উপনেতার দায়িত্বে থাকবেন এরশাদের ভাই জিএম কাদের। আর বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপের দায়িত্ব পাচ্ছেন মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ।

নিয়ম অনুযায়ী নতুন সংসদের প্রথম অধিবেশনের শুরুর দিন ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। অধিবেশন শুরুর পর প্রথমেই হবে স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন।

সংসদ সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, স্পিকার-ডেপুটি স্পিকার নির্বাচনের পর অধিবেশন কিছু সময় মুলতবি রাখা হবে। এই সময় সংসদে অবস্থানরত রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে নতুন স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার শপথ নেবেন। পরে নবনির্বাচিত স্পিকারের সভাপতিত্বে শুরু হবে সংসদের বৈঠক।

অধিবেশনজুড়ে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা করবেন সংসদ সদস্যরা। তবে রাষ্ট্রপতির ভাষণের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে কিছু সময়ের জন্য অধিবেশন মুলতুবি রাখা হবে। এরপর আবার সংসদের বৈঠক শুরু হলে স্পিকার রাষ্ট্রপতিকে ভাষণ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানাবেন। রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর অধিবেশন রেওয়াজ অনুযায়ী মুলতবি করা হবে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে