x

সদ্যপ্রাপ্ত

  •  বিকালের মধ্যেই বিদ্যুৎ বৃদ্ধির ঘোষণা আসছে: বিইআরসি

বিশ্বব্যাংকের আর্থিক খাত সহায়তা প্রকল্প

বেসরকারি খাতে ডলার ঋণের সুদ হার আরও কমল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০১ নভেম্বর ২০১৭, ১৭:১২ | অনলাইন সংস্করণ

বেসরকারি খাতের উৎপাদনমুখী শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য বৈদেশিক মুদ্রায় দীর্ঘ মেয়াদি ঋণের সুদহার কমিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বিশ্বব্যাংকের আর্থিক খাত সহায়তা প্রকল্পে (এফএসএসপি) সুদহার প্রতি ক্ষেত্রে দশমিক ৫০ শতাংশ বেসিস পয়েন্ট কমানো হয়েছে। এর ফলে ব্যাংকগুলো এ তহবিল থেকে এখন সর্বোচ্চ লাইবর যোগ ২ থেকে ৩ শতাংশ সুদে ঋণ নিতে পারবে। এতদিন এই সুদ ছিল আড়াই থেকে সাড়ে ৩ শতাংশ।

আজ বুধবার এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় গঠিত ২৯ কোটি ২৫ লাখ ডলারের ঘূর্ণায়মান তহবিলের কার্যক্রম শুরু হয় গত ২০১৫ সালের অক্টোবরে। এখানে বিশ্বব্যাংক যোগান দিয়েছে ২৫ কোটি ৪০ লাখ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের রয়েছে ৩ কোটি ৮৫ লাখ ডলার। এখান থেকে ব্যাংকগুলো অর্থ নিয়ে গ্রাহক পর্যায়ে বৈদেশিক মুদ্রায় সর্বোচ্চ ১০ বছর মেয়াদে ঋণ দিতে পারে।

যে ব্যাংকের ক্যামেলস রেটিং মান যতো ভালো তারা ততো কম সুদে ঋণ দিতে পারে। আর শুধুমাত্র ১, ২ ও ৩ রেটিং মান পাওয়া ব্যাংক এখান থেকে অর্থ নিতে পারে। ক্যামেলস রেটিংয়ে মান-১ পাওয়া ব্যাংকগুলো এখন পাঁচ বছর মেয়াদি ঋণ বিতরণ করবে লন্ডন আন্তঃব্যাংক অফার রেট (লাইবর) যোগ ২ শতাংশ। আগে এটি ছিল আড়াই শতাংশ। সাত বছর মেয়াদি ঋণ লাইবর যোগ ২ দশমিক ২৫ শতাংশ সুদে এবং ১০ বছর মেয়াদি ঋণ দেবে লাইবর যোগ আড়াই শতাংশ সুদে। আগে এই দুই মেয়াদী ঋণের সুদ ছিল যথাক্রমে ২ দশমিক ৭৫ ও ৩ শতাংশ।

পরবর্তী দুই রেটিং মানে প্রতি পর্যায়ে সুদহার দশমিক ২৫ শতাংশ হারে বেশি। অর্থাৎ ক্যামেলসে ২ রেটিং ব্যাংকগুলো এই তিন মেয়াদী ঋণের ক্ষেত্রে যথাক্রমে ২ দশমিক ২৫, আড়াই ও ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ সুদে ঋণ নিতে পারবে। তিন রেটিংভুক্ত ব্যাংকগুলো ঋণ নিতে পারবে আড়াই, ২ দশমিক ৭৫ ও ৩ শতাংশ সুদে। প্রতিক্ষেত্রে আগের তুলনায় সুদ হার দশমিক ৫০ শতাংশ করা হয়েছে।

এর আগে গত বছরের নভেম্বরে এই তহবিলের সুদ হার দশমিক ৫০ শতাংশ বেসিস পয়েন্ট করে কমানো হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে