সরকারি ব্যাংকের মুনাফায় আলাদিনের চেরাগ

খেলাপীতে জর্জরিত হলেও দ্বিগুণ মুনাফা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৩০ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২১:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

খেলাপী ঋণ, মূলধন ঘাটতি ও প্রভিশন ঘাটতি ইত্যাদি সমস্যায় জর্জরিত সরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা অনেক বেড়েছে। গত বছরে এই খাতের ৬ ব্যাংকের মুনাফা হয়েছে ৩ হাজার ৯৬১ কোটি টাকা। যা আগের বছরের তুলনায় ৯৭ শতাংশ বেশি। গত ২০১৬ সালে এই খাতের ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা হয় ২ হাজার ১০ কোটি টাকা। ব্যাংকগুলোর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রশাসনিক খরচ কমানো, নতুন ঋণ বিতরণ এবং খেলাপী ঋণ আদায়ের মাধ্যমে এই মুনাফা বাড়ানো সম্ভব হয়েছে।

সরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১ হাজার ১৭৮ কোটি পরিচালন মুনাফা হয়েছে সোনালী ব্যাংকের। দেশের সবচেয়ে বড় এই ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে ১৭৮ শতাংশ। আগের বছরে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা ছিল ৪২৪ কোটি টাকা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মুনাফা করেছে জনতা ব্যাংক ১ হাজার ১৭১ কোটি টাকা। গত ২০১৬ সালে ব্যাংকটির মুনাফা হয়েছিল ১ হাজার ১০ কোটি টাকা। অগ্রণী ব্যাংকের মুনাফা ৫৮৯ কোটি টাকা থেকে প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে গত বছর শেষে ৯৫০ কোটি টাকা হয়েছে। মুনাফায় চমক দেখিয়েছে রুপালী ব্যাংক। গত ২০১৬ সালে ব্যাংকটি ৮৭ কোটি টাকা লোকসানে থাকলেও গত বছরে ৫১১ কোটি টাকা মুনাফা করেছে। এদিকে ঋণ ডাকাতিতে সর্বস্বান্ত বেসিক ব্যাংক এবছরও মুনাফা করেছে। বিদায়ী বছরে মুনাফা হয়েছে ৪৩ কোটি টাকা, আগের বছরে যা ছিল ৯ কোটি টাকা। তার আগের পরপর দুই বছর বিপুল পরিমান লোকসান করে বেসিক ব্যাংক। এছাড়া বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (বিডিবিএল) মুনাফা ৬৪ কোটি টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ১০৮ কোটি টাকা।

ব্যাংকের নাম    ২০১৭  (কোটি টাকায়)     ২০১৬(কোটি টাকায়)
সোনালী ১১৭৮ ৪২৪
জনতা ১১৭১ ১০১০
অগ্রনী ৯৫০ ৫৮৯
রুপালী ৫১১ -৮৭
বিডিবিএল ১০৮ ৬৪
বেসিক ৪৩
মোট ৩৯৬১ ২০১০
 

উল্লেখ্য, পরিচালন মুনাফা ব্যাংকের প্রকৃত মুনাফা নয়। পরিচালন মুনাফা বেশি দেখা গেলেও যথাযথভাবে ঋণ শ্রেণিকরণ করলে এবং এর বিপরীতে প্রভিশন কেটে রাখা হলে মুনাফা কমে যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবদনে দেখা যায়, গত ২০১৬ সালে সরকারি ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা হয়  ২ হাজার ১০ কোটি টাকা। কিন্তু প্রভিশন রাখা এবং কর পরিশোধের পর ব্যাংকগুলোর নিট লোকসান হয় ৫১১ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হিসেবে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের ব্যাংকিং খাতের সর্বমোট ৮০ হাজার ৩০৭ কোটি খেলাপী ঋণের মধ্যে প্রায় অর্ধেকই সরকারি ৬ বাণিজ্যিক ব্যাংকের। ওই সময় পর্যন্ত ওই ৬ ব্যাংকের খেলাপী ঋণের পরিমান ৩৮ হাজার ৫১৭ কোটি টাকা; যা তাদের বিতরণকৃত ঋণের মধ্যে ২৯ শতাংশ। মোট ১১ হাজার ৯৬৪ কোটি টাকা খেলাপী ঋণ নিয়ে খেলাপী ব্যাংকের তালিকার শীর্ষে রয়েছে সোনালী ব্যাংক। অন্য সরকারি ব্যাংকগুলো খেলাপী তালিকায় সবার শীর্ষে রয়েছে।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে