রাবিতে কক্ষ বরাদ্দের দাবিতে সভাপতিকে অবরুদ্ধ করেছে ফোকলোর শিক্ষার্থীরা

  রাবি প্রতিনিধি

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৯:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

কক্ষ বরাদ্দের দাবিতে নিজ বিভাগের সভাপতিকে অবরুদ্ধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ঈসমাইল হোসেন শিরাজী ভবনে বিভাগের সামনে তারা এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করে।
 
ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ঈসমাইল হোসেন শিরাজী ভবনের ১২১ নম্বর কক্ষটি তাদের আগে থেকেই ছিল। কিন্তু সেই কক্ষে এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছে। এতে ক্লাস সংকটে ভুগছে বলে ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি নিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

তবে শিরাজী ভবনের ১২১ নম্বর কক্ষটি ২০১১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের নামে বরাদ্দ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জানা গেছে, অবস্থান কর্মসূচির আগে সকাল ৯টা থেকে বিভাগের প্রত্যেক শিক্ষকের রুমে তালা দিয়ে বিভাগের ১২২ নম্বর কক্ষের সামনে তারা অবস্থান ধর্মঘট পালন করে। পরে বেলা ১১টার দিকে বিভাগের সভাপতিকে অবরুদ্ধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, সহকারী প্রক্টর, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ওই বিভাগে গিয়ে বিভাগের সভাপতির সাথে কথা বলে সমাধানের চেষ্টা করে।

পরে দুই বিভাগের সভাপতি, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং কলা অনুষদের ডিনের সাথে কথা বলে জরুরি সভা করে সিদ্ধান্ত নেবে বলে শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করা হয়। এতে শিক্ষার্থীরা কিছুক্ষনের জন্য শান্ত হলেও সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত বিভাগের সভাপতিকে অবরুদ্ধ করে বিভাগের সামনেই অবস্থান নিয়ে কর্মসূচি পালন করে তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. লুৎফর রহমান বলেন, ‘আমি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা আজকে বিষয়টি সমাধানের জন্য প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলবো।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আখতার হোসেন বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা তো আমাকেই অবরুদ্ধ করে রাখছে। আমি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বলেছি বিষয়টি সমাধান করতে। তারাই এর সমাধান করবে।’

উল্লেখ্য, গত বুধবার সৈয়দ ঈসমাইল হোসেন শিরাজী ভবনের ১২১ নম্বর কক্ষের সামনে বিশৃঙ্খলাকে কেন্দ্র করে ইতিহাস ও ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে