ঈদের দিনেও রাজপথে থাকবেন নন-এমপিও শিক্ষকরা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ জুন ২০১৮, ১৫:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি
এমপিওভুক্তির জন্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের কথায় আশ্বস্ত হতে পারছে না নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারীরা। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি আদায়ের লক্ষ্যে ঈদের দিনেও কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।  

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন। পরে সংগঠনের সভাপতি গোলাম মাহমুদুন্নবী নতুন এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

গোলাম মাহমুদুন্নবী বলেন, ঈদের দিনেও শিক্ষকরা রাজপথে থাকবে। সকালে ঈদের নামাজ পড়ে ভুখা মিছিল বের করবে প্রেসকাবের সমানে। ঈদের সেমাই মিষ্টিও না খাওয়ার প্রত্যয় এই শিক্ষক কর্মচারীদের।

তবে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষকদের দাবির বিষয়ে বলেছেন, বাজেটে আলাদাভাবে উল্লেখ না থাকলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি করতে এটা কোনো বাধা হবে না। বাজেটে থোক বরাদ্দ রয়েছে। এমপিওভুক্তির ব্যাপারে সরকার কাজ করছে।

মন্ত্রীর বক্তব্যের পরও শিক্ষকরা আন্দোলন করছেন জানতে চাইলে শিক্ষক নেতা গোলাম মাহমুদুন্নবী জানান, নুরুল ইসলাম নাহিদের এমন বক্তব্য অনেক আগেও দিয়েছেন। তার কোনো বাস্তবায়ন তিনি করেননি। ফলে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে থাকবেন বলে ঘোষণা দেন এই শিক্ষক কর্মচারীরা।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারীরা ১০ জুন থেকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছেন। এর মধ্যে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন শিক্ষকরা।  ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির ঘোষণা না থাকায় আন্দোলনের ডাক দেন বেসরকারি নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা।

সংগঠনের তথ্যানুযায়ী, বর্তমানে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা পাঁচ হাজার ২৪২টি। এসব প্রতিষ্ঠানে এক দশকেরও বেশি সময় থেকে বিনা বেতনে পাঠদান করছেন এমন শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় ৮০ হাজার।

ছয় বছর বন্ধ থাকার পর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সর্বশেষ ২০১০ সালে আওয়ামী লীগ সরকার এক হাজার ৬২৪টি বেসরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজকে এমপিওভুক্ত করে। এরপর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি বন্ধ রয়েছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে