তাস খেলতে না দেওয়ায় জবির ৩ শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর

  জবি প্রতিনিধি

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:২৮ | আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ক্যাম্পাসে তাস খেলতে বসতে না দেওয়ায় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তিনজন শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কর্মীরা।

এ ঘটনায় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৯ম ব্যাচের মাস্টার্স ১ম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নাইনের স্টাফ রিপোর্টার রিয়াজ রহমান আহত হয়েছেন। এ ছাড়া তার সহপাঠী ফয়জুন্নাহার আক্তার জিনিয়া ও মো. সাব্বির হাসান আহত হন। তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

আহতদের সহপাঠীরা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের কাছে গ্রুপ স্টাডি করতে যায় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ ৯ম ব্যাচের ছয় শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে কয়েকজন নারী শিক্ষার্থীও ছিল।

এ সময় কতিপয় যুবক এসে এই জায়গায় ‘তাস খেলবে’ জানিয়ে তাদেরকে আসন থেকে উঠে যেতে বলে। শিক্ষার্থীরা তাদের ছাত্রত্ব সম্পর্কে জানতে চাইলে যুবকরা নিজেদের ছাত্রলীগ কর্মী ও ১২ ব্যাচের শিক্ষার্থী বলে পরিচয় দেয়। এক পর্যায়ে বাকবিতন্ডতা হলে তারা শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং বেধড়ক মারধর শুরু করে।

এ ঘটনায় প্রক্টর অফিস বরাবর লিখিত অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কৃত এক শিক্ষার্থীসহ নাম উল্লেখপূর্বক ছয় শিক্ষার্থী ও অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তি দাবি করে আহত শিক্ষার্থীরা।

অভিযুক্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- ১২ তম ব্যাচের সিএসই বিভাগের মাশফিক খান আদর, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শান্ত ও শিবলি, ভূগোল বিভাগের পার্থ, প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ফুয়াদ, দর্শন বিভাগের মেহেদী।

এদিকে এ হামলাকে অপ্রীতিকর ঘটনা উল্লেখ করে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদিন রাসেল বলেন, ‘সামান্য ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমন ঘটেছে। আমরা আহতদের সঙ্গে নিয়ে প্রক্টর অফিসে গিয়েছি এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদ বলেন, একটি লিখিত বক্তব্য পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে