ঢাবিতে ভর্তিযুদ্ধ শুরু কাল, প্রতি আসনে লড়বেন ৩৮

  বিশ্ববিদ্যলয় প্রতিবেদক

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের  ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। গ-ইউনিটের অধীনে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে এবারের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে।

ঢাবির কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসের তথ্যমতে, এ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঁচটি ইউনিটের মোট সাত হাজার ১২৮ আসনের বিপরীতে দুই লাখ ৭২ হাজার ৫১২ জন প্রার্থী অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করেছেন। ওই হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ৩৮ জন শিক্ষার্থী। বরাবরের মতো এ বছরও সর্বাধিক আবেদন জমা পড়েছে ঘ-ইউনিটে এবং সর্বনিম্ন আবেদন পড়েছে চ-ইউনিটে।

গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের মোট ৫৪টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে পরীক্ষা চলবে ১১টা পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষার সিট-প্ল্যান বিশ্ববিদ্যালয়ের (admission.eis.du.ac.bd) ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিস থেকে জানা যায়, এবার ক-ইউনিটের এক হাজার ৭৫০ আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৮২ হাজার ৯৭০ জন, খ-ইউনিটের দুই হাজার ৩৭৮টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৩৬ হাজার ২৫০ জন, গ-ইউনিটের এক হাজার ২৫০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ২৭ হাজার ৫৩৪ জন, ঘ-ইউনিটের এক হাজার ৬১৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে এক লাখ ৬১৪ জন এবং চ-ইউনিটে ১৩৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ২৫ হাজার ১৪৪ জন শিক্ষার্থী।

ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড 

‘গ’ ও ‘চ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা শুরু হয়েছে গত ৫ সেপ্টেম্বর বেলা ৩টা থেকে। আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ‘গ’ ও ‘চ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। ‘ক’, ‘খ’, ‘ঘ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে ১০ সেপ্টেম্বর বেলা ৩টা থেকে পরীক্ষার দিন সকাল ৯টা পর্যন্ত।

বিভিন্ন ইউনিটের পরীক্ষার তারিখ 

এবারের গ-ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হচ্ছে। বরাবরের মতো ঘ-ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে। সে অনুযায়ী, ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর, গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১২ অক্টোবর, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৫ সেপ্টেম্বর এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অঙ্কন) ২২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষার হলে মুঠোফোনসহ টেলিযোগাযোগ করা যায় এমন কোনো ইলেক্ট্রনিক যন্ত্র সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরীক্ষার সময় দায়িত্ব পালন করবে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে