রায়ের পর যা বললেন দুলু

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৩৭ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

পুরোনো ছবি

নির্বাচন কমিশন অন্যায়ভাবে তার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন নাটোর-২ (সদর ও নলডাঙ্গা) আসনে বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। আজ সোমবার দুপুরে হাইকোর্ট প্রাঙ্গনে দুলুর মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিতের আদালতের রায়ের পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে সকালে বিএনপি নেতা ইকবাল মাহমুদ টুকু ও রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এই সিদ্ধান্তের পর আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাদের অংশগ্রহণে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছে আইনজীবীরা।

পরে দুলু সাংবাদিকদের বলেন, ‘তারা প্রত্যাশ করেছিল এবং ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের মাধ্যমে আমাকে রিটার্নিং অফিসার বাতিল করেছিল। আমি নির্বাচন কমিশনের কাছে জাস্টিস চেয়েছিলাম। কিন্তু আমার দুর্ভাগ্য তারা বুঝতে পারে নাই, না হলে আমরা তাদের বুঝাতে সক্ষম হয়নি। তারা অন্যায়ভাবে আমার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছিল।’

মহামান্য আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এখানে জাস্টিস পেয়েছি। আমি বলেছিলাম জাতিকে আমি শেষটা দেখতে চাই। মাহামান্য হাইকোর্ট একটা ন্যায্য ও ন্যায় সঙ্গত রায় দিয়েছে। আমি এর জন্য কৃতজ্ঞ এবং আগামী দিনে আমার সম্মান ছিল আইনের প্রতি শ্রদ্ধা। আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলতে চাই আমি অবশ্যই নির্বাচন করতে চাই এবং আমি কৃতজ্ঞতা জানাই সবাইকে। আমার সাংবাদিক ভাইদেরও কৃতজ্ঞতা জানাই যে জনমত যাচাইয়ের জন্য জনগণের কাছে ফিরে যেতে চাই।’

দুলু আরও বলেন, ‘আমি মনে করি মহামান্য আদালত যে রায় দিয়েছে তাতে আমার নির্বাচন করতে বাধা নেই।’

এর আগে নাটোর-২ (সদর ও নলডাঙ্গা) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। তবে ফৌজদারি মামলায় দণ্ড থাকায় রিটার্নিং কর্মকর্তা গত ২ ডিসেম্বর দুলুর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। এর বিরুদ্ধে তিনি ইসিতে আপিল করলে ৬ ডিসেম্বর তা খারিজ হয়।  পরে ইসির এই সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রোববার (৯ ডিসেম্বর) হাইকোর্টে রিট করেন দুলু।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে