৩১ বছর পর

  বিনোদন সময় প্রতিবেদক

০৯ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ০৯ মার্চ ২০১৮, ০১:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ১৩ এপ্রিল মুক্তি পাচ্ছে আলোচিত চলচ্চিত্র একটি সিনেমার গল্প। এর মাধ্যমে ৩১ বছর পর জুটি হয়ে পর্দায় আসছেন আলমগীর ও চম্পা। শুধু অভিনয়ই নয়, আলমগীরের নির্দেশনায়ও ৩১ বছর পর কাজ করলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী চম্পা। আর এ বিষয়গুলো নিশ্চিত করেছেন আলমগীর নিজেই। চম্পা প্রসঙ্গে আলমগীর বলেন, ‘চম্পা সিরিয়াস একজন অভিনেত্রী। নিজের অভিনয় কীভাবে সুন্দর করা যায় সেই চেষ্টা এখনো তার আছে। অভিনয়ের প্রতি তার যে দুর্বলতা, একাগ্রতা, নিষ্ঠা এগুলো এখন অনেকের মধ্যেই নেই। আর এ কারণেই আমার চলচ্চিত্রে তাকে নেওয়া। প্রতিটি দৃশ্য সে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছে। এটা একাগ্রতার দৃষ্টান্ত। অসাধারণ অভিনয় করেছে চম্পা। আমিও সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি সময়োপযোগী একটি ভালো চলচ্চিত্র দর্শকের জন্য নির্মাণ করতে। আমি খুব আশাবাদী এ চলচ্চিত্র নিয়ে।’ দীর্ঘদিন পর আলমগীরের বিপরীতে তারই নির্দেশনায় অভিনয় প্রসঙ্গে চম্পা বলেন, ‘আমি যে সময়ে তার নির্দেশনায় কাজ করেছি, সে সময় চলচ্চিত্র সম্পর্কে আমার ধারণা কম ছিল। কিন্তু সেই সময়ের কথা আজ মনে পড়লে একটি বিষয়ই আমার কাছে স্পষ্ট হয়ে দাঁড়ায়, সেই সময়ই আলমগীর ভাই নির্মাতা হিসেবে ছিলেন অসাধারণ। তিনি অবশ্যই অনেক বড় মাপের একজন অভিনেতা। কিন্তু তার পরও আমি বলব, অন্য অনেকের চেয়ে তিনি অনেক গুণী একজন নির্মাতা। আলমগীর ভাই চাইলেই আরও অনেক ভালো ভালো চলচ্চিত্র দর্শককে উপহার দিতে পারতেন। আলমগীর ভাই সবসময়ই অত্যন্ত বিনয়ী এবং খুবই সহযোগিতা পরায়ণ একজন শিল্পী। তার নির্দেশনায় এতদিন পর কাজ করে ভীষণ ভালো লেগেছে আমার। আমি খুবই আশাবাদী চলচ্চিত্রটি নিয়ে। কারণ এর গল্প, সংলাপ, গান এক কথায় অসাধারণ।’ উল্লেখ্য, ১৯৮৬ সালে চম্পা আলমগীরের নির্দেশনাতেই ‘নিষ্পাপ’ চলচ্চিত্রে আলমগীরের বিপরীতে অভিনয় করেন। একক নায়িকা হিসেবে এটিই ছিল চম্পার প্রথম চলচ্চিত্র। এর পর আলমগীরের সঙ্গে আরও বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও আলমগীরের বিপরীতে অভিনয়ের সুযোগ হয়ে উঠেনি তার।

আলমগীরের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘আইকন এন্টারটেইনম্যান্ট’-এর ব্যানারে ‘একটি সিনেমার গল্প’ নির্মিত হয়েছে। এর কাহিনি, সংলাপ, চিত্রনাট্য আলমগীরের নিজের। শুটিং শেষে জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে এটি সেন্সর বোর্ডে জমা দেন আলমগীর। ৩০ জানুয়ারি ছবিটি দেখেছেন সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা। ৩১ জানুয়ারি সেন্সর বোর্ড বিনা কর্তনে ছবিটি প্রদর্শনের অনুমতি দেয়।

এতে বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা, আরিফিন শুভ, সৈয়দ হাসান ইমাম, সাদেক বাচ্চু, সাবেরী আলম, ওয়াহিদা মল্লিক জলিসহ অনেকে। চলচ্চিত্রটির সম্পাদনা করেছেন তৌহিদ হাসান চৌধুরী। এ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে একজন সংগীত পরিচালক হিসেবে অভিষেক হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন গায়িকা রুনা লায়লার। তার সুর সংগীতে এতে প্লে-ব্যাক করেছেন

আঁখি আলমগীর।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে