এবার অভিনেতা অলোকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

০৯ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতের টেলিভিশন ও বলিউডের নন্দিত অভিনেতা অলোক নাথের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন লেখিকা-প্রযোজক বিনতা নন্দা। বিশ বছর আগে অলোক তাকে ধর্ষণ করেছেন বলে দেশটির একটি টেলিভিশনকে জানিয়েছেন বিনতা।

অলোককে ফিল্ম ও টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির সব থেকে ‘সংস্কারি' ব্যক্তি উল্লেখ করে সম্প্রতি একটি ফেসবুক পোস্টে ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ করেন বিনতা নন্দা।

পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘১৯ বছর ধরে এই সময়ের জন্য আমি অপেক্ষা করছিলাম। হ্যাঁ ফিল্ম ও টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির সব থেকে সংস্কারি ব্যক্তিই এই ঘটনাটির সঙ্গে জড়িত।'
ফেসবুকে বিনতা আরও লিখেন- ‘উনি একজন মদ্যপ, বেহায়া, জঘন্য মানুষ। আবার সেই দশকের টেলিভিশন স্টার। তাই বাজে ব্যবহার সত্ত্বেও বিশেষ কেউ তাকে চটাতে চাইতেন না। সংস্কারি অভিনেতার হাতে "তারা"র লিড অ্যাকট্রেসও হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন। কারণ তার অলককে খুব একটা ভালো লাগত না।'

৯০ এর দশকে ভারতের একটি টেলিভিশনের জনপ্রিয় সিরিয়াল ছিল ‘তারা’। এর লেখিকা-প্রযোজক ছিলেন বিনতা। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করতেন অলোক। প্রতিটি টিভি নাটক ও সিনেমায় অলোক ‘সংস্কারি’ চরিত্রে অভিনয় করতেন। তাই তার পেছনের মুখ কেউ দেখেনি। সে সুযোগেই নাকি বিনতাকে ধর্ষণ করেন অলোক।

ভারতীয় বার্তা সংস্থা আইএএনএস’কে বিনতা বলেছেন, ‘হ্যাঁ, ওই ব্যক্তি অলোক নাথই। আমি আশা করেছিলাম সংস্কারি বললেই কাজ হবে।’

ঘটনা সম্পর্কে এই প্রযোজক আরও বলেন, 'আমরা অলোকের বাড়িতে পার্টি করতে গেছিলাম। তখন রাত ২টা। আমি বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসি। মদ পান করেছিলাম। নিজের বাড়ি যাওয়ার জন্য ফাঁকা রাস্তা ধরে হাঁটতে শুরু করি। এক ব্যক্তি নিজেই গাড়ি চালিয়ে আসেন। গাড়িতে বসতে বলেন। এবং বলেন, বাড়ি পৌঁছে দেবেন। আমি বিশ্বাস করে তার গাড়িতে বসি।
এরপর আমার খুব একটা কিছু মনে নেই। শুধু মনে আছে, আমাকে কেউ আরও মদপান করিয়ে দেয়। পরের দিন দুপুরে যখন ঘুম থেকে উঠি তখন খুব ব্যথা করছিল। শুধু ধর্ষণ করা হয়নি, আমার বাড়িতেই বর্বরতার শিকার হতে হয়েছিল আমাকে। বিছানা ছেড়ে উঠতে পারছিলাম না। কয়েকজন বন্ধুকে জানিয়েছিলাম। ওরা বলল, বিষয়টা ভুলে যেতে।'

এই কথাগুলো বিনতা তার ফেসবুক পোস্টেও উল্লেখ করেছেন। এমনকি অলোক নাথ এর পরে তাকে আবারও কুপ্রস্তাব দিয়েছিলেন বলে জানান তিনি।

ফেসবুক পোস্ট ও আইএএনএস'কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিনতা নন্দা আরও বলেন, 'নিজেকে পিছিয়ে রাখবেন না। এটা পরিবর্তনের সময়। তাই আপনার নীরবতা একটা বিবর্তনের ক্ষেত্রে বাধা দিতে পারে। বলে ফেলুন। চিৎকার করে বলুন।'

প্রসঙ্গত বলিউডজুড়ে যখন অভিনেতা নানা পাটেকর ও অভিনেত্রী তনুশ্রীর যুদ্ধ চলছে, ঠিক তখনই অলোকের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন বিনতা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে