দর্শকদের ঠকালেন আমির খান?

  অনলাইন ডেস্ক

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪৯ | অনলাইন সংস্করণ

বহুল প্রত্যাশিত সিনেমা ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’ মুক্তি পেয়েছে গতকাল বৃহস্পতিবার। বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট খ্যাত অভিনেতা আমির খান ও বিগ বি আমিতাভ বচ্চন প্রথমবারের মতো এই সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেছেন। 

ওই দুই শাক্তিশালী অভিনেতার অভিনয় দেখার জন্য দর্শকদের আগ্রহ ছিল আকাশ ছোঁয়া। ভারতজুড়ে মোট সাত হাজার সিনেমা হলে মুক্তি পায় ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’।  বিগ বাজেটের সিনেমা ‘থাগস অব হিন্দুস্থান’ মুক্তির প্রথম দিনে বক্স অফিসে রেকর্ড পরিমাণ আয় করেছে। প্রথমদিনে বক্স অফিসে সিনেমাটির মোট আয় ৫২ কোটি ২৫ লাখ রুপি। বলিউডের ইতিহাসে মুক্তির প্রথম দিনে এটিই সর্বোচ্চ আয়। তবে দর্শকদের আশা কতটা পূরণ করতে পেরেছেন অমিতাভ ও আমির?

অভিনেতাদের পারফরম্যান্স বিচারের দায়িত্বটা ‍মূলত দর্শকদের ওপরই বর্তায়। কেননা দর্শকরাই  তো সিনেমার প্রাণ।

আনন্দ বাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সিনেমাটি সম্পর্কে জানতে চাইলে দর্শকদের উল্লাসের থেকে বরং সমালোচনাই বেশি ছিল। বেশিরভাগ দর্শক নাকি ছবিটি দেখে হতাশ হয়েছেন। কারো মনে হয়েছে, সাম্প্রতিক অতীতে আমির খানের এটি সবচেয়ে দুর্বল ছবি। আবার কেউ বলছেন, ট্রেলার দেখেই বোঝা গিয়েছিল ছবিটি একেবারেই ভালো হবে না। রিলিজের পরই প্রমাণ পাওয়া গেল তার।

আদিত্য চোপড়া প্রযোজিত এই ছবির পরিচালনা করেছেন বিজয়কৃষ্ণ আচার্য। আমিতাভ বচ্চন এই ছবিতে অভিনয় করেছেন আজাদ চরিত্রে। ইংরেজ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি ভারতে এসেছিল ব্যবসা করতে। এই ফাঁকে তারা রাজত্ব করেছিল ২০০ বছর। কোম্পানির হাত থেকে ভারতকে স্বাধীন করতে লড়েছেন আজাদ। এ লড়াইয়ে তার সহযাত্রী চরিত্রে দেখা গেছে, ফাতিমা সানা শেখকে। আর তাদেরকে শায়েস্তা করতেই ফিরাঙ্গি মল্লাহকে নিয়ে আসে ইংরেজরা। ফিরাঙ্গির চরিত্রে রয়েছেন আমির খান। ফিরাঙ্গিকে সঙ্গ দিতে আসে ক্যাটরিনা কাইফ। যাকে শুধু গানেই দেখার মতো।

হিন্দুস্তান টাইমস লিখেছে, ঐতিহাসিক একটি গল্প নিয়ে ছবিটি তৈরি করা হলেও চিত্রনাট্য ঠিকঠাক বাধতে ব্যর্থ হয়েছে পরিচালক। ছবির অনেক দৃশ্য অযথাই অনেক বড় করে দেখানো হয়েছে। যাতে করে ছবিটি অনেক দীর্ঘ হয়েছে এবং দর্শক তাদের আগ্রহ হারিয়েছে। এতে ছবির রেটিং দেওয়া হয়েছে মাত্র ২.৫।

এনডিটিভির অনলাইন সংস্করণে ছবিটি নিয়ে একটি পর্যালোচনায় বলা হয়েছে, ছবিটি নিয়ে তেমন উৎসাহ হওয়ার কিছু নেই। কারণ এতে অমিতাভ বচ্চন আর আমির খানের মতো দুজন শক্তিশালী অভিনেতা দুটি দারুণ চরিত্রে অভিনয় করেও ছবিটিকে তেমন আকর্ষণীয় করতে পারেনি।

সবকিছুর পরও ছবিটির দৃশ্যগুলো যেভাবে ক্যামেরায় ধারন করা হয়েছে তা ছিল প্রশংসনীয়। কিন্তু অপ্রয়োজনীয় ভিএফএক্স দিয়ে কিছু দৃশ্যের আসল গুরুত্ব হারিয়ে গেছে মাঝেমধ্যে।

আনন্দবাজার সূত্রের খবর, ১৮৩৯-এ প্রকাশিত ফিলিপ ম্যাডোসের লেখা বই ‘কনফেশনস অফ আ থাগ’ অবলম্বনে লেখা হয়েছে ছবির চিত্রনাট্য। আমিরের চরিত্রটি অ্যান্টাগনিস্ট। এ ছাড়া ক্যাটরিনা কাইফ, ফাতিমা সানা শেখের মতো শিল্পীর অভিনয়ে সমৃদ্ধ এই ছবি দর্শকদের কতটা সন্তুষ্ট করতে পারে তা এখন দেখার বিষয়।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে