x

সদ্যপ্রাপ্ত

  •  বিপিএল এর পঞ্চম আসরের শিরোপা জিতল রংপুর রাইডার্স। মাশরাফির হাতে চতুর্থ ট্রফি

দলীয় প্রধানের পদ থেকে বরখাস্ত হলেন প্রেসিডেন্ট মুগাবে

  অনলাইন ডেস্ক

১৯ নভেম্বর ২০১৭, ১৮:৩৬ | আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ২০:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টি সেই দলের নেতার পদ থেকে প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে বরখাস্ত করেছে। তার জায়গায় সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে বসানো হয়েছে। খবর বিবিসির

দু সপ্তাহ আগে রবার্ট মুগাবে এমনাঙ্গাগওয়াকে বরখাস্ত করেছিলেন। এর পর থেকেই জিম্বাবুয়েতে নাটকীয় সব ঘটনা ঘটতে থাকে। ৯৩ বছর বয়স্ক মুগাবে যেন তার স্ত্রী গ্রেসকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট করতে না পারেন, তা ঠেকাতে সামরিক বাহিনী হন্তক্ষেপ করে।

হারারের মতো বড় শহরগুলোর রাস্তায় মুগাবের বিরুদ্ধে হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করছে। এর আগে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টির প্রভাবশালী যুব লীগ প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে পদ ছেড়ে দেবার ওপর চাপ দেয়। যুব লীগ এ ছাড়াও মুগাবের স্ত্রী গ্রেসকে পার্টি থেকে বের করে দেবারও আহ্বান জানিয়েছে।

তারা মুগাবের স্ত্রীর বিরুদ্ধে 'উচ্ছৃঙ্খল এবং ধূর্ত' আচরণের অভিযোগ আনে এবং উৎখাত হওয়া ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে তার পদে পুনস্থাপন করারও আহ্বান জানায়।

ধারণা করা হচ্ছে, এটা মুগাবের জন্য এক বিরাট অপমান এবং এরপরও তিনি পদ আঁকড়ে থাকলে আগামী সপ্তাহে তাকে অভিশংসনের মুখোমুখি হতে হতে পারে।
 
আজই কোন এক সময় সামরিক বাহিনীর জেনারেলরা মুগাবের সঙ্গে দেখা করবেন। গত বুধবার সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখল করার পর থেকেই তিনি তার নিজ বাসভবনে গৃহবন্দী আছেন।

অন্যদিকে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাধর সাবেক মুক্তিযোদ্ধা আন্দোলনের নেতা ক্রিস মুৎসওয়াঙ্গুয়া মুগাবের প্রতি এক কড়া সতর্কবাণী উচ্চারণ করে বলেছেন, তিনি যদি আজই পদত্যাগ না করেন তাহলে গণ-সহিংসতা শুরু হবে।

তিনি বলেন, সামরিক বাহিনীকে আজকের মধ্যেই মুগাবের ব্যাপারটা মিটিয়ে ফেলতে হবে। তা নাহলে জনগণ রাস্তায় নেমে আসবে এবং 'যা করার তা করবে'।

তবে মুৎসওয়াঙ্গুয়া বলেন, তিনি মুগাবের সম্মানজনক প্রস্থান বা এমনকি নির্বাসন চান। সেনাবাহিনী জনগণের সাথে আছে এবং তাদের কাজকর্মে কোনো ত্রুটি হয় নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে