যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রচারণায় হলিউড সুন্দরীরা

  সায়মা শারমিন

০২ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:২৬ | আপডেট : ০২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৩:১১ | অনলাইন সংস্করণ

চলচ্চিত্র অঙ্গনে এবং অন্যান্য কর্মস্থলে নারীদের যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রচারণায় নেমেছেন ৩০০ জনেরও বেশি হলিউড অভিনেত্রী, লেখক এবং পরিচালক। এই প্রচারাভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে ‘টাইমস আপ’। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে শক্তিশালী গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসে পুরো পৃষ্ঠাজুড়ে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে  এই উদ্যোগের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। খবর বিবিসির।

বিনোদন জগতের নারীসহ সব কর্মস্থলের নারীদের বদলে যাওয়ার জন্য ডাক দিয়েছেন ওই সব হলিউড সুন্দরীরা।

এলক্ষ্যে ১৫ মিলিয়ন ডলারের ক্যাম্পেইন প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন হলিউডের জনপ্রিয় সেলিব্রেটিরা। এদের মধ্যে আছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী এমা ওয়াটসন, নাথালি পোর্টম্যান ও এমা স্টোনসহ শত শত তারকারা। শুধু তাই নয় এক সপ্তাহের ব্যাবধানে সংগঠনটি ১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার যোগাড় করতে সমর্থ হয়েছে।

সংগ্রীহিত এই অর্থ কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানির শিকার নারী ও পুরুষ উভয়ের পক্ষে আইনগত সহায়তায় প্রদান করা হবে। প্রাথমিকভাবে এ প্রকল্পের অর্থ তাদের জন্য ব্যয় করা হবে যারা পরনির্ভরশীল। যেমন কৃষক, শ্রমিক, কেয়ারটেকার ও ওয়েটার।

গত বছর ডিসেম্বরে যৌন হয়রানি এবং নিগ্রহের বিষয়ে বিশ্বব্যাপী যারা নীরবতা ভেঙে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছেন তাদের সাহসিকতার স্বীকৃতি দিয়ে বছরের সেরা ব্যক্তিত্বের মর্যাদা দিয়েছে মার্কিন প্রভাবশালী ইংরেজি সাময়িকী টাইম ম্যাগাজিন।

এছড়াও গত বছর যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী প্রতিরোধের প্রকাশ হ্যাশ ট্যাগ মি টু’র উত্থান হয়। এই আন্দোলনের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী নারী ও পুরুষ উভয়ই তাদের যৌন নিপীড়নের গল্প ভাগাভাগি করতে অনুপ্রাণিত হয়েছিল।

শুরুটা করেন মার্কিন অভিনেত্রী অ্যালিজা মিলানো। যা সাড়া ফেলে পুরো বিশ্বে। হলিউডের মুভি মুঘল, হার্ভে ওয়েনস্টেইনের যৌন কেলেঙ্কারির খবর ফাঁসের প্রতিক্রিয়ায় ছিলো, তাঁর এই উদ্যোগ।

গত বছর অক্টোবর এবং ডিসেম্বরে এই হ্যাশট্যাগ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার এবং ফেসবুকে ৬ মিলিয়ন বারের বেশি ব্যবহার করা হয়েছিল।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে