অভিবাসীদের সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য ট্রাম্পের!

প্রকাশ | ১২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৩:০৫ | আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:২৩

অনলাইন ডেস্ক
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন প্রত্যাশীদের সর্ম্পকে এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন । গতকাল বৃহস্পতিবার ওভাল অফিসে দেশটির একদল সাংসদের সঙ্গে অভিবাসন নীতিমালা নিয়ে আলোচনায় তিনি প্রশ্ন তুলেন এবং বলেন, 'কেন আমরা নোংরা দেশগুলোর লোকজনকে এখানে নিয়ে আসছি?' বিশেষ করে হাইতি, এল সালভাদর ও আফ্রিকার দেশগুলো নিয়ে ট্রাম্পের এই অশ্লীল মন্তব্য ছিল বলে ওয়াশিংটন পোস্টের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন মন্তব্যে ডেমোক্রেট-রিপাবলিকান দুই শিবিরেই তীব্র সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। তবে হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে ট্রাম্পের বক্তব্যের পক্ষেই বিবৃতি দিয়েছে। এতে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ইচ্ছা সবসময়ই মার্কিন জনগণের পক্ষে লড়াই করার।

এতে আরও বলা হয়, মার্কিন বর্তমান প্রশাসন অন্য অনেক দেশের মতো মেধা-ভিত্তিক অভিবাসনে আগ্রহী। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দেশকে শক্তিশালী করতে স্থায়ী সমাধানের পথে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এ প্রেক্ষিতে যেন তাদেরই স্বাগত জানানো যায়, যারা আমাদের সমাজে অবদান রাখতে পারবেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে ও আমাদের মহান জাতির সঙ্গে একীভূত হয়ে যেতে পারবেন। অস্থায়ী, দুর্বল ও বিপজ্জনক পন্থায় নেওয়া অভিবাসী যারা পরিশ্রমী মার্কিনিদের ও বৈধভাবে অভিবাসী হওয়া নাগরিকদের জীবনকে হুমকির মুখে ফেলে ট্রাম্প তাদের প্রত্যাখ্যান করতে চান বলেও বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

চলতি সপ্তাহে এক ঘোষণায় ট্রাম্প প্রশাসন আগামী বছরের মধ্যে তিন দশক ধরে অস্থায়ীভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করা সালভাদরের দুই লাখ লোককে দেশে ফিরে যেতে সময় দিয়েছে। ১৯৯১ সালে দেশটিতে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের প্রতিক্রিয়ায় সেখানকার নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের এই সুযোগ পেয়েছিল।

এর আগে ট্রাম্প প্রশাসন যুক্তরাষ্ট্রে অস্থায়ীভাবে বসবাস করা হাইতি ও নিকারাগুয়ার নাগরিকদের টেম্পোরারি প্রটেক্টেড স্ট্যাটাসও (টিপিএস) প্রত্যাহার করে নিয়েছে।
শত সহস্র অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রে সম্ভাব্য নির্বাসন সমস্যার সম্মুখীন।