ধর্ষণ, তারপর যৌনাঙ্গে ধারালো অস্ত্র ঢুকিয়ে খুন

  অনলাইন ডেস্ক

১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৪২ | অনলাইন সংস্করণ

শুধু ধর্ষণ করেই থেমে থাকেনি তারা। শারীরিক নির্যাতনের পর এক কিশোরির যৌনাঙ্গে ধারালো অস্ত্র ঢুকিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ভারতের হরিয়ানা রাজ্যে ঘটেছে এমনই ঘটনা।

গতকাল শনিবার রাজ্যের জিন্দ জেলার বুদাখেরা গ্রামের একটি খালের পাশ থেকে ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, গত ৯ জানুয়ারি প্রাইভেট পড়তে গিয়েছিল বছর ১৫ বয়সের ওই কিশোরী। তারপর থেকেই নিখোঁজ ছিল সে। তিন দিন পর শনিবার তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

কিশোরীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রোহতক জেলায় পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কিশোরীর শরীরে অনেক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে এস কে ধত্তরবাল নামের এক চিকিৎসক বলেন, “মেয়েটিকে একাধিক ব্যক্তি মিলে ধর্ষণ করেছে। যৌনাঙ্গে ধারালো অস্ত্র ঢুকিয়ে ছিন্নভিন্ন করে দেওয়া হয়েছে। দেহে অনেক আঘাতের চিহ্নও পাওয়া গেছে।”

পুলিশ জানায়, নিখোঁজ হওয়ার পর ঝাঁসা থানায় মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ডায়েরি করা হয়। যে দিন মেয়েটি নিখোঁজ হয়, ওই দিন থেকে একই এলাকার একটি ছেলেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এই ঘটনার পিছনে ওই ছেলেটির হাত থাকতে পারে বলে অভিযোগ করেন মেয়েটির বাবা। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে