এই গ্রামে রাতারাতি সবাই কোটিপতি!

  অনলাইন ডেস্ক

১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:০০ | আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

কোটিপতি হওয়া যেনতেন কথা নয়। সারা জীবন পরিশ্রম করেও কোটিপতি হতে পারেন না অনেকেই। কিন্তু যদি শোনেন রাতারাতি কেউ কোটিপতি হয়ে গেছে, তাহলে চোখ কপালে ওঠাটাই স্বাভাবিক। সম্প্রতি এমন কাণ্ড ঘটেছে ভারতের একটি গ্রামে। একজন-দুজন নন, গ্রামটির সবাই হয়েছেন গেছেন কোটিপতি।

ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য হিন্দুর খবরে বলা হয়, ঘটনাটি ভারতের অরুণাচল প্রদেশ রাজ্যের তাওয়াং জেলায় অবস্থিত প্রত্যন্ত গ্রাম বোমজারে ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার সেই গ্রামের সবাই কোটিপতি হয়ে গেছেন। গ্রামটিকে এখন ‘কোটিপতিদের গ্রাম’ বলা হচ্ছে।

খবরে বলা হয়, চীন সীমান্তের কাছে তাওয়াংয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী দীর্ঘদিন ধরে তাদের ঘাঁটি আরও শক্তিশালী করার চেষ্টা করছে। ভারতের সেনাবাহিনী ‘তাওয়াং গ্যারিসন’ তৈরির জন্য অনেক দিন ধরেই বোমজা গ্রামবাসীর কাছে জমি চেয়ে আসছিল। কিন্তু গ্রামবাসী জমি দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। কারণ, বোমজার বাসিন্দাদের কাছে পাহাড়, জমি পবিত্র সম্পদ।

তবে প্রশাসন গ্রামবাসীদের বোঝাতে শুরু করে, পাহাড়ের মালিকানা ধরে রেখে মনে শান্তি থাকলেও, বছর গেলে আয় হয় না। তাই এই জমি দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে দিয়ে দেওয়াই ভাল। বিনিময়ে মিলবে ভাল দাম। অবশেষে দীর্ঘ পাঁচ বছর পর প্রশাসনের প্রস্তাবে রাজি হয় বোমজার গ্রামের মানুষ।

গত বুধবার অরুণাচলের মুখ্যমন্ত্রী বোমজা গ্রামের ৩১টি পরিবারের হাতে মোট ৪০ কোটি ৮০ লাখ ৩৮ হাজার ৪০০ রুপির চেক তুলে দেন। পরে গ্রামের ২৯টি পরিবারের মধ্যে সমান এক কোটি নয় লাখ তিন হাজার ৮১৩ রুপির চেক প্রদান করা হয়। একটি পরিবার পেয়েছে দুই কোটি ৪৪ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮৬ রুপি। সবচেয়ে বেশি জমির মালিক পেয়েছেন ৬ কোটি ৭৩ লাখ ২৯ হাজার ৯২৫ রুপি।

অরুণাচলের মুখ্যমন্ত্রী বোমজা বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অরুণাচল প্রদেশের উন্নতিতে আগ্রহী হয়ে এই অর্থ মঞ্জুর করেছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে