‘আপনি এখন সুপারম্যানের মতো উড়তে পারেন’

  অনলাইন ডেস্ক

১৪ মার্চ ২০১৮, ১৭:৩৫ | আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৮, ১৮:১০ | অনলাইন সংস্করণ

পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংয়ের মৃত্যুতে শোকাহত পৃথিবী। একাবিংশ শতাব্দীর অন্যতম সেরা এই বিজ্ঞানীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেসবুক-টুইটারসহ বিভিন্ন মাধ্যমে শোক প্রকাশ করছেন সবাই। এ তালিকায় বাদ পড়েনি যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসাও।

টুইটারে একটি পোস্টে নাসার পক্ষ থেকে লেখা হয়, ‘স্মরণ করছি বিজ্ঞানের একজন দূতকে, একজন পদার্থবিদকে, স্টিফেন হকিংকে। তার তত্ত্ব অপার সম্ভাবনার পথ খুলে দিয়েছিল, যা আমাদের ও বিশ্বকে অনুসন্ধানে সাহায্য করছে। মাইক্রোগ্রাভিটিতে আপনি এখন সুপারম্যানের মতো উড়তে পারেন, ঠিক যেমনটি আপনি ২০১৪ সালে মহাকাশ স্টেশনের নভোচারীদের বলেছিলেন।’

এদিকে হকিংয়ের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন কণ্ঠশিল্পী কেটি পেরি, অভিনেতা পিয়ার্স মরগান, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ অনেকেই।

আজ বুধবার ৭৬ বছর বয়সে মৃত্যু হয় স্টিফেন হকিংয়ের।  ১৯৪২ সালের ৮ জানুয়ারি যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ডে জন্মগ্রহণ করেন স্টিফেন হকিং। ২১ বছর বয়স থেকেই তিনি দুরারোগ্য মটর নিউরন রোগে ভুগছিলেন। শারীরিক অক্ষমতা তার কর্মে বাধা হয়ে থাকেনি। সেই অবস্থার মধ্যেও হকিং মহাবিশ্ব সৃষ্টির রহস্য ‘বিগ ব্যাং থিউরি’ দেন।

মহাবিশ্বের সৃষ্টি রহস্যের তাত্ত্বিক ব্যাখায় কৃষ্ণ গহ্বর ও আপেক্ষিকতা তত্ত্বের ব্যাখা দিয়ে বর্তমান সময়ের শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানীর স্থান দখল করে আছেন স্টিফেন হকিং। বিশিষ্ট ইংরেজ তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানী ও গণিতজ্ঞ হিসেবে বিশ্বের সর্বত্র পরিচিত তিনি। কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের লুকাসিয়ান অধ্যাপক হিসেবে ১ অক্টোবর, ২০০৯ তারিখে অবসর নেন হকিং।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে