নাতনিকে ধর্ষণ করলেন দাদা!

  অনলাইন ডেস্ক

২১ জুন ২০১৮, ১৩:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি

চার বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বৃদ্ধের (৬০) বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ব্যক্তি সম্পর্কে শিশুটির দাদা।

ভারতীয় গণমাধ্যম এএনআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনাটি ভারতের  ছত্তীসগড়ের কোন্ডাগাঁওয়ে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১১ জুন। সেদিন মাঠে খেলতে গিয়ে হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যায় শিশুটি। তারপরই শিশুটির বাবা পুলিশে অভিযোগ করেন। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করলেও, কীভাবে তার মৃত্যু হলো সে সম্পর্কে প্রাথমিকভাবে কোনো কিছুই জানতে পারছিল না।

কোন্ডাগাঁওয়ের পুলিশ সুপার (এসপি) অভিষেক পল্লব জানিয়েছেন, কোনো প্রত্যক্ষদর্শী ছিল না এই ঘটনার। এরপর ঘটনাস্থলে পুলিশ কুকুর এনে তদন্ত শুরু হয়। কুকুরটিই একটি রক্ত মাখা লুঙ্গি উদ্ধার করে। সেখান থেকে কুকুরটি সোজা চলে যায় শিশুটির দাদার কাছে। তখনই পুলিশের সন্দেহ গিয়ে পড়ে দাদুর ওপর। পরে পুলিশি জেরার মুখে অভিযুক্ত ব্যক্তি নিজের দোষ স্বীকার করে।

এসপি জানান, শিশুটিকে হত্যার পর, অভিযুক্ত ব্যক্তি শিশুটির লাশ মাঠের মধ্যে লুকিয়ে রাখে। কারণ, সে চেষ্টা করেছিল নাতনি নিখোঁজ সেটাই প্রমাণ করতে। এরপর শিশুটির লাশ বাড়ির কাছেই কাদা-পানিতে ছুড়ে ফেলে দেয় শিশুটির দাদা। 

অভিষেক পল্লব আরও জানান, পুলিশি জেরার মুখে ওই ব্যক্তি নিজের দোষ স্বীকার করেছে। তারপরই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে