সন্তানকে ‘বুকের দুধ’ পান করিয়ে ভাইরাল হলেন বাবা

  অনলাইন ডেস্ক

০৫ জুলাই ২০১৮, ১১:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

সন্তানকে ‘বুকের দুধ’ খাইয়ে ভাইরাল হয়েছেন এক ব্যক্তি। কন্যা সন্তান জন্ম গ্রহণের পর পরই তাকে কৃত্রিম পন্থায় বুকের দুধ খাইয়ে রেকর্ডের খাতায়ও নাম লিখিয়েছেন ম্যাক্সমিলিয়ান নেবোয়ার নামে ওই ব্যক্তি।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের উইস্কনসিন রাজ্যে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম কেপিটিভি.কম জানিয়েছে, স্ত্রী সংজ্ঞাহীন থাকায় তার পরিবর্তে কাজটি করেছেন নেবোয়ার। এতে তিনি বেশ উচ্ছাসিত।

ম্যাক্সমিলিয়ান নেবোয়ার তার সন্তানকে স্তনদানের এই মুহুর্তটিকে ক্যামেরাবন্দি করে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করার পরপরই ভাইরাল হতে থাকে ছবিগুলো। নেটিজেনরাও তার এই অদ্ভুত স্তনদানের ছবি দেখে চমকে গেছেন।

       

এখনও পর্যন্ত ৩০ হাজার শেয়ার হয়েছে নেবোয়ারের পোস্টটি। কেপিটিভি.কম আরও জানিয়েছে, নেবোয়ার স্ত্রী এপ্রিল গত মাসে সন্তান জন্ম দেন। কিন্তু সন্তানে প্রসবের পর প্রায় কয়েক ঘন্টা সংজ্ঞাহীন ছিলেন তিনি। এ সময় পর্যন্ত তার মেয়ে মাতৃদুগ্ধ পায়নি। পরে হাসপাতালের নার্সরা নেবোয়ারকে দুষ্টুমি করে সন্তানকে স্তন্যপান করাতে পারবেন কি না জিজ্ঞেস করেন।

প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই রাজি হয়ে যান নেবোয়ার। পরে নার্সরা তার বুকে একটি দুধে ভরা সিরিঞ্জের সঙ্গে প্লাস্টিকের নিপল শিল্ড লাগিয়ে কৃত্রিম স্তন তৈরি করে দেন। পরে নেবোয়ার তা তুলে ধরেন তার কন্যার মুখে। অবাক করার বিষয় হল- নেবোয়ারের সদ্যজাত কন্যা মায়ের বুকের দুধ মনে করেই খেতে থাকে তা।

স্বাভাবিক ভাবেই পুরো ঘটনায় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন নেবোয়ার। এমনকি নার্সরাও তা দেখে কেঁদে ফেলেন। পরে নার্সের হাতে নিজের মোবাইল ধরিয়ে বেশ কয়েকটি ছবি তুলে নেন নেবোয়ার।

হাসপাতালে বসেই পরে ছবিগুলো কে একটির সঙ্গে আরেকটি জোড়া লাগিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেন নেবোয়ার। মুহুর্তেই তা ভাইরাল হতে শুরু করে।

ছবিটি দেখে নিন্দা জানিয়েছেন কেউ কেই। তবে, রাতারাতি বহু মানুষের ভালবাসা পেয়েছে ছবিটি। কেউ লিখেছেন- ফিডিং বোতল দিয়েই একাজ করা যেত। আবার কেউ লিখেছেন- সন্তানের জন্য এক বাবার ভালবাসার এই অভিনব প্রকাশ দেখে আমি উচ্ছ্বসিত।

মারিয়া কোর্টনার নামে এক নারী লিখেছেন, হয়তো তুমি সেই সৌভাগ্যবতী প্রিয় যে তার বাবার বুকের দুধ খেয়ে বড় হবে। এটা তোমার জন্য গর্বের।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে