অন্তর্বাস খুলে দেখাতে ২০০০ ‘যৌন বার্তা’ পাঠিয়েছিলেন মন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

১৬ জুলাই ২০১৮, ১১:২৬ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৮, ১৪:১১ | অনলাইন সংস্করণ

একটি পানশালার দুই পরিচারিকাকে ২০০০ ‘যৌন বার্তা’ পাঠানোর অভিযোগ ওঠার পর পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য, শক্তি ও শিল্পবিষয়ক মন্ত্রী অ্যান্ড্রু গ্রিফিত। গত শনিবার রাতে এক বিবৃতি দিয়ে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানান তিনি। জানা গেছে, ওই দুই নারীর কাছে অশালীন ছবি ও ভিডিও চেয়েছিলেন তিনি।

দ্য সানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পদত্যাগী মন্ত্রী অ্যান্ড্রু গ্রিফিত দেশটির প্রধানমন্ত্রী টেরিসা মের সাবেক উপদেষ্টা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পানশালার ওই দুজন পরিচারিকার সঙ্গে পরিচিত হন। এরপর তাদের সঙ্গে অশালীন আলোচনা শুরু করেন। পরিচারিকা ইমোজেন ট্রিহার্নি (২৮) ও তার সহযোগীকে ৭০০ পাউন্ড পাঠান গ্রিফিত। তাদের একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিতে বলেন, যেখানে তারা যৌন সম্পর্কে জড়াবেন।

গ্রিফিত ওই দুই পরিচারিকাকে অশ্লীল খুদে বার্তা পাঠিয়েছেন। মে’র এই উপদেষ্টা তাদের অন্তর্বাস খুলে ফেলার আহ্বান জানিয়ে সেসব বার্তায় বলেছেন, এমন সুযোগে তারা তাকে কাছে পাবেন।

অপর খুদে বার্তায় মন্ত্রী তার সাবেক প্রেমিকা সম্পর্কে নানান কটূক্তি করেন। এসব বার্তা পাওয়া দুজনের মধ্যে এক পরিচারিকা বলেছেন, এত বেশি পরিমাণ বার্তা পেয়ে তিনি হতাশ হয়েছেন। তিনি (মন্ত্রী) নোংরামি ছাড়া আর কিছু ভাবতেই পারেন না।

যৌন বার্তা পাঠানোর তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পর অ্যান্ড্রু এক বিবৃতির মাধ্যমে ক্ষমা চান দলীয় নেতাদের কাছে। তিনি বলেছেন, এ ঘটনায় তিনি গভীরভাবে লজ্জিত ও বিব্রত। এমন ঘটনা যাতে আর না ঘটে, তা নিশ্চিত হতে তিনি পেশাদারদের সহায়তা নেবেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে