‌‘অবৈধ সম্পর্ক’ সন্দেহে স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বিদ্যুতের শক দিয়ে খুন!

  অনলাইন ডেস্ক

১৯ জুলাই ২০১৮, ১৯:৪৪ | আপডেট : ১৯ জুলাই ২০১৮, ১৯:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

প্রতীকী ছবি
অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে- এই সন্দেহে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে ছত্তিশগড় সশস্ত্র বাহিনী বা সিএএফ-এর এক জওয়ানের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বিদ্যুতের ছ্যাঁকা দিয়ে তাকে খুন করেছেন তিনি। 

এ ঘটনার পর গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রায়পুরের বালোদাবাজার-ভাটাপাড়া জেলায়। 

ভারতের শীর্ষস্থানীয় এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, অভিযুক্তের নাম সুরেশ মিরি। তিনি পেশায় দান্তেওয়াড়া জেলায় ছত্তিশগড় সশস্ত্র বাহিনীর ষষ্ঠ ব্যাটেলিয়নের রাঁধুনি। স্ত্রী লক্ষ্মী ও দুই সন্তানকে নিয়ে তিনি ভাটাপাড়ায় একটি হাউজিং বোর্ড কলোনিতে থাকতেন। 

জেরায় সুরেশ জানান, তার সন্দেহ ছিল, স্ত্রীর কারও সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। এ নিয়ে গতকাল বিকেলে তাদের তুমুল ঝগড়া হয়। এর পর লক্ষ্মী যখন বাথরুমে জামাকাপড় কাচছিলেন, তখন সুরেশ ভেতরে ঢুকে তাকে মারতে শুরু করেন। মারধরে স্ত্রী অজ্ঞান হয়ে পড়লে ইলেকট্রিক তার দিয়ে গোপনাঙ্গে ছ্যাঁকা দেন তিনি। এতে ঘটনাস্থলেই লক্ষ্মীর মৃত্যু হয়।

এর পর সুরেশ শ্বশুর শাশুড়িকে ডেকে বলেন, লক্ষ্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তার পর ভ্যানে করে তাকে নিয়ে পাশের মুঙ্গেলি জেলায় নিজের গ্রাম খাজরিতে যান তিনি। পরে শ্বশুর শাশুড়িকে খবর দেন, লক্ষ্মীর মৃত্যু হয়েছে। 

কিন্তু তারা দেহ দেখে সুরেশকে সন্দেহ করে পুলিশে খবর দেন। এর পরই সুরেশকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে