বেপরোয়া অটোচালক, মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক

০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৪:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

বাজার থেকে অটো রিকশায় করে দেড় বছর বয়সী শিশুকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন মা রিঙ্কি। সে সময় চিপস খেতে চেয়েছিল গোলু। চিপসের প্যাকেটটা খুলে দেওয়ার সময়ই ব্যাগে থাকা মোবাইল ফোন বেজে ওঠে রিঙ্কির। ছেলেকে সামনের রড ধরে দাঁড় করিয়ে ফোন বের করার মুহূর্তেই রাস্তার পাশে বালি পাথরকে পাশ কাটিয়ে মোড়ের মাথায় আচমকা ব্রেক কষেন অটোচালক।

শিশুটি হাত থেকে চিপসের প্যাকেট পড়ে যাচ্ছে দেখে মায়ের দিকে ঘুরতে গেলে ছিটকে পড়ে যায় অটো থেকে। এ সময় ফোন-ব্যাগ সব ফেলে আর্তনাদ করে কোনও রকমে অটো থেকে নামেন রিঙ্কি। কিন্তু বেপরোয়া চালক না দাঁড়িয়ে শিশুটির ওপর দিয়েই অটো চালিয়ে চলে যান। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টা দিকে ভারতের অক্ষয়কুমার মুখার্জি রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ঘটনার দিন বিকেলেই ভোলা দত্ত নামে অভিযুক্ত অটোচালককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনসহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে স্থানীয় ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর অঞ্জন পালের দাবি, ‘মায়ের অসাবধানতায় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার পরেই বরাহনগর হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছিলাম শিশুটিকে। কিন্তু বাঁচানো যায়নি।’

হাসপাতাল সূত্রের খবর, শরীরের বাইরে কোনো আঘাতের চিহ্ন না থাকলেও মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ এবং ঘাড় বা শিড়দাঁড়ায় আঘাতের জন্যই দুর্ঘটনার পরেই মৃত্যু হয় শিশুটির।
যদিও শিশুটির মা বলেন, ‘অটোর মাত্রাতিরিক্ত গতি এবং রেষারেষির কারণেই আমার একমাত্র সন্তানের মৃত্যু হয়েছে।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে