খাশোগির সন্ধানে তুরস্কের জঙ্গলে তল্লাশি

  অনলাইন ডেস্ক

১৯ অক্টোবর ২০১৮, ১২:২৬ | আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির নিখোঁজের রহস্য উন্মোচন করতে এবার জঙ্গলে তল্লাশি শুরু করেছে তুর্কি পুলিশ। ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেট ও কনসাল জেনারেলের বাসার পর এবার পার্শ্ববর্তী জঙ্গল বেলগ্রাড জঙ্গলে তল্লাশি চালান তারা।

অস্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বুধবার ইস্তানবুল থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে ওই জঙ্গল এবং ইয়ালোভা শহরের একটি গ্রাম্য এলাকায় তল্লাশি করে তুর্কি পুলিশ।

সাংবাদিক খাশোগিকে হত্যার পর তার মরদেহ পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে কিংবা একটি খামার বাড়িতে পুঁতে রাখা হয়েছে বলে আশঙ্কা করছে তুরস্কের তদন্ত দলের কর্মকর্তারা।

সূত্রের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, খাশোগি নিখোঁজের দুই সপ্তাহ পেরিয়ে যাওয়ার পর সৌদি কনস্যুলেট ও কনসাল জেনারেলের বাসায় তল্লাশি চালাতে সক্ষম হয় তুর্কি পুলিশ। বুধবার ১২ ঘণ্টারও বেশি সময় অনুসন্ধান ও তল্লাশি চালান তারা। এসব জায়গা থেকে সংগ্রহ করা নমুনাগুলো খাশোগির ডিএনএ এর সঙ্গে মেলে কিনা তা পরীক্ষা করা হচ্ছে। খাশোগি হত্যায় অভিযুক্ত ১৫ সদস্যের হিট স্কোয়াডের মধ্যে ছয়জনের হাতের আঙুলের ছাপ পাওয়া গেছে সি ব্লকে।

ইস্তানবুল থেকে আল জাজিরার প্রতিবেদক চার্লস স্ট্রাফোর্ড জানান,কনস্যুলেট ভবনের নির্দিষ্ট একটি এলাকা তদন্তকারীদের মনোযোগ কেড়েছে। ‘সি ব্লক’ নামে পরিচিত ওই এলাকা শুধু কূটনৈতিক কর্মীদের জন্য নির্ধারিত। আর সেখানেই খাশোগিকে হত্যার শক্ত প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এদিকে শুরু থেকেই খাশোগিকে হত্যার একটি অডিও প্রমাণ হাতে থাকার দাবি করে আসছে তুরস্ক। ওই অডিও রেকর্ডিং পুরোপুরি শুনেছেন এমন এক তুর্কি সূত্র মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডলইস্ট আইয়ের কাছে দাবি করেন, ২ অক্টোবর মাত্র সাত মিনিটে পুরো হত্যাকাণ্ড সম্পাদিত হয়েছে। ওই সূত্র দাবি করেছে, খাশোগিকে হত্যার উদ্দেশ্যে সৌদি আরবের জেনারেল সিকিউরিটি বিভাগের ফরেনসিক প্রমাণ সংক্রান্ত প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করা সালাহ মোহাম্মদ আল তুবাইগিসহ ১৫ জনের একটি দল প্রাইভেট জেটে করে ওইদিন সকালে আঙ্কারা পৌঁছান।

মিডল ইস্ট আই জানায়, খাশোগিকে জিজ্ঞাসাবাদের কোনো আলামত দেখা যায়নি। তাকে হত্যা করতেই স্কোয়াডটি এসেছিল। হত্যার পর ওইদিন সৌদি কনসাল জেনারেলের বাড়িতে নৈশ ভোজ করেছে সন্দেহভাজনরা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে