কড়া নিরাপত্তায় দেশ ছাড়লেন আসিয়া বিবি

  অনলাইন ডেস্ক

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:০০ | অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসিয়া বিবি মুক্তি পাওয়ার পর পরই দেশ ছেড়েছেন।  তার আইনজীবী সাইফ মুলুক জানান, গতকাল বুধবার রাতে মুলতান কারাগার থেকে মুক্তি পান আসিয়া বিবি।  সেখান থেকে কড়া নিরাপত্তায় তাকে একটি ব্যক্তিগত বিমানে তোলা হয়।  তবে তার পরবর্তী গন্তব্য সম্পর্কে কিছুই জানাননি কারাকর্তৃপক্ষ।

সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়েছে,খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী পাকিস্তানি নারী আসিয়াকে একটি প্লেনে রাজধানী ইসলামাবাদের একটি নিরাপদ আশ্রয়ে নেওয়া হয়েছে।

গত ৩১ অক্টোবর ইসলামাবাদের সুপ্রিমকোর্ট পাকিস্তানে ধর্ম অবমাননা আইনের (ব্লাসফেমি) মামলায় আট বছর আগে মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসিয়া বিবিকে বেকসুর খালাস দেয়। এরপরই আসিয়ার খালাসের রায় বাতিলের দাবিতে সহিংস বিক্ষোভ শুরু করে পাকিস্তানের কট্টরপন্থী ইসলামিক দলগুলো।  নিরাপত্তা হুমকির মুখে আসিয়াকে রাখা হয় মুলতানের নারী কারাগারে।

বিক্ষোভের রাশ টানতে কট্টর ইসলামপন্থী দল তেহরিক-ই-লাবাইকের (টিএলপি) সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের কথা জানান পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী। তবে বুধবার সকালে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আফ্রিদি ভয়েস অব আমেরিকাকে বলেন,'দণ্ডিত হওয়া কিংবা বিচারিক নির্দেশ ছাড়া আসিয়া বিবির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যাবে না।'

সহিংস বিক্ষোভের মুখে নিরাপত্তা শঙ্কায় পশ্চিমা দেশে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছিলেন আসিয়া বিবির স্বামী।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের জুন মাসে লাহোরের কাছে শেখুপুরা এলাকায় ফল পাড়তে গিয়ে অন্য নারীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চার সন্তানের জননী আসিয়া নবীকে (সা.) নিয়ে কটূক্তি করেন বলে অভিযোগ ওঠে।  ওই অভিযোগে ২০১০ সালে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।  শুরু থেকেই নিজেকে নির্দোষ দাবি করে এসেছেন আসিয়া।  গত ৮ বছর ধরে তাকে কারাগারের নির্জন প্রকোষ্ঠে দিন কাটাতে হয়েছে। 

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে